অমিত সাহার জামিন স্থগিত

প্রকাশিতঃ ৩:০১ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৪ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার বুয়েট শিক্ষার্থী অমিত সাহার পক্ষে অ্যাডভোকেট মঞ্জুরুল আলম মঞ্জুসহ কয়েকজন আইনজীবী জামিনের আবেদন করলে আদালত না মঞ্জুর করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসী শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।আদালত সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

এদিন জামিন শুনানিতে আইনজীবীরা বলেন, অমিত সাহা সম্পূর্ণ নির্দোষ। এজাহারে তার নাম নেই। ঘটনাস্থলে তিনি উপস্থিত ছিল না। পূজার ছুটিতে তিনি বাড়িতে ছিলেন। শুধুমাত্র নামের কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিডিও ফুটেজে তাকে দেখা যায় নাই। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও স্বীকার করেছেন ঘটনাস্থলে অমিত সাহা উপস্থিত ছিলেন না। সন্দেহজনকভাবে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিন নামঞ্জুরের আদেশ দেন।

এর আগে গত ১১ অক্টোবর অমিত সাহাকে ৫ দিনের ও ১৭ অক্টোবর ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত ।এরপর ২০ অক্টোবর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে ইলেক্ট্রিক অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। রাত তিনটার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরদিন চকবাজার থানায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলার ২০ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এছাড়াও সারা দেশের ছাত্র সমাজকে আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোব করতে দেখা যায়। এবং বুয়েট শিক্ষার্থীরা এক জোটে আন্দোলন করেন। এতে তার ১১ দফা দাবি উত্থাপন করেন। গুরুত্বপূর্ণ দাবি তাদের শিক্ষাঙ্গনে সকল ধরণের ছাত্র রাজনিতি বন্ধ করতে হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ