সোনালী ব্যাংকের মামলায়
আওয়ামী লীগ নেতা সুইডেন আতাউরের জামিন নামঞ্জুর

প্রকাশিতঃ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ৭ নভেম্বর ১৯

নরসিংদী প্রতিনিধি: রাষ্ট্রীয় ব্যাংক সোনালী ব্যাংকের দায়ের করা প্রতারণা ও জালিয়াতি মামলায় নরসিংদীর আওয়ামী লীগ নেতা সুইডেন আতাউরের জামিন নামঞ্জুর করেছে আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে শতকোটি টাকার মোল্লা স্পিনিং মিল অবৈধ দখলের মামলায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মনিষা রায়রে আদালতের তোলা হলে বিচারক এ আদেশ প্রদান করেন। এসময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে ১৩ নভেম্বরের ভিতরে আরও দুই দিন জেলা গেইটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি প্রদান করেন।

জালিয়াতি ও প্রতারণা মামলায় ৩১ সেপ্টেম্বর ঢাকার মালিবাগ থেকে সুইডেন আতাউরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। পরদিন শুক্রবার বিকেলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাইনুউদ্দিন কাদিরের আদালতে তাকে সোপর্দ করা হয়। ওই মামলারর তদন্তকারী সিআইডি’র কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

আদালতের বিচারক তাকে প্রতিদিন ৪ ঘন্টা করে পরপর ৩ দিন জেলগেইটে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু সরকারি কাজে সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা ব্যাস্ত থাকায় তাকে একদিন জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এরই মধ্যে আজ বৃহস্পতিবার সুইডেন আতাউরের আইনজীবীরা আদালতে জামিন প্রার্থনা করেন। একই সাথে সিআইডির তদন্তকারী কর্মকর্তা জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক শুনে আদালতের বিচারক সুইডেন আতাউরের জামিন নামঞ্জুর করেন। একই সাথে সিআইডির তদর্ন্তকারী কর্মকর্তাকে আগামী ১৩ নভেম্বরের মধ্যে সুইডেন আতাউরকে আরও দুইদিন জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি প্রদান করে আদালত।

মোল্লা স্পিনিং মিল দখলের অভিযোগে ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ব্যাংকের ঋণের বিপরীতে দায়বদ্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠানটির অবৈধ দখলদার সুইডেন আতাউর রহমানসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলার করেছে মিলটির ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান সোনালী ব্যাংক। ব্যাংকের ইন্ডাস্ট্রিয়াল ক্রেডিট বিভাগের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মোহাম্মদ বেলাল হোসেন বাদী হয়ে দায়ের করা মামলায় দখলদার উচ্ছেদের দাবি জানান।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ