আগাম নির্বাচনের প্রস্তাবেও হারলেন জনসন

প্রকাশিতঃ ১২:৪৫ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২৯ অক্টোবর ১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রিটিশ পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের আগাম নির্বাচনের একটি প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে এমপিরা। সোমবার হাউস অব কমন্সে ১২ ডিসেম্বর আগাম নির্বাচন চেয়ে ভোট হলে দুই-তৃতীয়াংশ এমপির ভোট পেতে ব্যর্থ হন বরিস।

প্রস্তাবের পক্ষে ২৯৯ ভোট ও বিপক্ষে ৭০ ভোট পড়ে। কিন্তু ফিক্সড-টার্ম পার্লামেন্ট অ্যাক্ট অনুযায়ী এই প্রস্তাব পাসের জন্য দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্থাৎ অন্তত ৪৩৪টি ভোট প্রয়োজন ছিল। কিন্তু রক্ষণশীল দলের সব সদস্য ও লিবারেল ডেমোক্রেট সদস্যদের মধ্যে একজন বাদে সবাই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিলেও তা যথেষ্ট হয়নি। লিব ডেমের ওই সদস্য বিপক্ষে ভোট দেন।

লেবার দলের অধিকাংশ সদস্যই ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল। এসএনপি ও ডিইউপি দলের সদস্যরাও ভোটে অংশ নেয়নি। ভোটের পর জনসন জানিয়েছেন, তিনি এমন একটি আইন পাশের চেষ্টা করবেন যেটায় শুধু সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা হলেই চলবে, আগের মতো দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হবে না। কিন্তু এটি করতেও লিব ডেম ও এসএনপির সমর্থন পেতে হবে।

জনসন বলেছেন, পার্লামেন্ট ‘অকার্যকর’ হয়ে আছে এবং ‘দেশকে আর জিম্মি করে রাখতে পারে না’; এর জবাবে বিরোধীদল লেবার বলেছে, প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বাস করা যায় না।

বরিস ১২ ডিসেম্বরের আগাম নির্বাচনের জন্য হাউস অব কমন্সের সমর্থন পেতে মঙ্গলবার ফের চেষ্টা করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। সূত্র: বিবিসি

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ