আরও ২ দিন বাণিজ্যমেলার সময় বাড়ল

প্রকাশিতঃ ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার সময় আরও দুদিন বাড়ানো হয়েছে। এ হিসাবে আগামী ৬ ফেব্রম্নয়ারি বৃহস্পতিবার রাতে এ মেলার কার্যক্রম শেষ হবে। মেলার আয়োজক রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) উপপরিচালক (অর্থ) আবদুর রউফ  সোমবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি মেলার মেয়াদ ৪ ফেব্রম্নয়ারি পর্যন্ত বাড়িয়েছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সেই হিসাবে আজ মঙ্গলবার মেলার কার্যক্রম শেষ হওয়ার কথা ছিল। এদিকে আগামী বছর বাণিজ্যমেলা শেরেবাংলা নগরের পরিবর্তে পূর্বাচলে বসবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

মেলামাঠে ইপিবির অস্থায়ী কার্যালয়ের পাশে বাণিজ্যমেলার ‘সমাপনী অনুষ্ঠানে’ বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সহসভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বাণিজ্যমন্ত্রীকে বলেন, মেলা চলার সময়ে দুই শুক্রবার ও বর্ধিত সময়সীমার মধ্যে এক দিন মেলার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। এতে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাই মেলার মেয়াদ আরও কিছুদিন বাড়ানো যায় কি না বিবেচনা করবেন। তখন বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাণিজ্যমেলা আরও দুই-তিন দিন বাড়ানো যায় কিনা বিষয়টা বিবেচনায় রাখব। সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দিয়ে যাব।’ এর পরপরই মেলামাঠে ইপিবির অস্থায়ী কার্যালয়ে এক বৈঠকে মেয়াদ দুই দিন বাড়ানোর অনুমোদন দেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

সমাপনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এবার মেলার চিত্রটা পাল্টে গেছে। চলাচলের সুবিধা বেশি ছিল। সব মিলিয়ে এবার সুন্দর মেলা উপহার দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। আগামী বছর মেলাটি পূর্বাচলে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে মেলার বরাদ্দকৃত স্থানে নিজস্ব কমপ্লেক্সে মেলা হবে। সেখানে লোকজন নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। পূর্বাচলে আন্তর্জাতিক মানের সেন্টার রয়েছে। সেখানেই মেলা হবে।’

সমাপনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিম আলতাফ জর্জ, বাণিজ্য সচিব ড. জাফর উদ্দীন, ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান ফাতিমা ইয়াসমিনসহ বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ইপিবির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় বিভিন্ন স্টল-প্যাভিলিয়নকে পুরস্কৃত করা হয়। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ