ছাত্রদলের কাউন্সিল
আলোচনায় ৮ সিন্ডিকেটের ৩৩ প্রার্থী

প্রকাশিতঃ ৬:৫১ অপরাহ্ণ, শুক্র, ২৩ আগস্ট ১৯

বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের শীর্ষ দুই পদে ৭৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন ছাত্রদলের কাণ্ডারি- বিএনপি নেতাদের আটটি সিন্ডিকেটের ৩৩ প্রার্থীকে ঘিরে চলছে মূল আলোচনা। ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে এসব সিন্ডিকেটের রয়েছে একাধিক প্রার্থী।

বিবাহিত ও অন্যান্য বিবেচনায় যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়তে পারেন- এমন ঝুঁকির জন্য বিকল্প প্রার্থীও রাখা হয়েছে। সিন্ডিকেটের বাইরে ছাত্রদলের শীর্ষ দুই পদে কয়েকজন আলোচনায় রয়েছেন।

সূত্র মতে, দীর্ঘ ২৭ বছর পর কাউন্সিলের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করতে যাচ্ছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া যেসব নেতাদের দায়িত্ব দিয়ে কমিটি গঠন করেছেন তার প্রত্যেকটি কমিটি নিয়ে অভিযোগ ছিল। স্বজনপ্রীতি, অর্থের বিনিময়ে কমিটি গঠনসহ বিস্তর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় ভাঙচুরসহ নানা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। রক্তাক্ত হতে হয় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বর্তমানে যুবদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকুকে। দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের দায়ে ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বর্তামানে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েলের নামে থানায় সাধারণ ডায়েরি করতে হয়েছে বিএনপির তৎকালীণ ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে।

নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি পার করে ছাত্রদলের ষষ্ঠ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর। এর আগে সিলেকশন প্রক্রিয়ায় সিন্ডিকেট করে দলীয় হাইকমান্ড থেকে অনুমোদন নিয়ে কমিটি গঠন হলেও এবার সে সুযোগ থাকছে না। তাই বলে পিছিয়ে নেই সিন্ডিকেটের তৎপরতা। কাউন্সিলকে ঘিরে শীর্ষ দুই পদের জন্য ১১০ জন মনোনয়নপত্র গ্রহণ করলেও জমা দিয়েছেন ৭৫ জন। ৭৫জনের মধ্যে বিএনপি নেতাদের আটটি সিন্ডিকেটের ৩৩ প্রার্থী রয়েছেন।

সিন্ডিকেট- ১

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও সাবেক সাংগঠনকি সম্পাদক নিখোঁজ এম ইলিয়াস আলীর সিন্ডিকেট হিসেবে পরিচিত হাওয়া ভবন খ্যাত রকিবুল ইসলাম বকুল, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল এবং সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ।

এই গ্রুপের সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন আল মেহেদী তালুকদার, মিরাজ উদ্দিন আজিম ও হাফিজুর রহমান।

সাধারণ সম্পাদক হিসেবে শাহনেওয়াজ, জুলহাস, আমিনুর রহমান আমিন ও ওমর ফারুক শাকিলের নাম শোনা যাচ্ছে।

সিন্ডিকেট- ২

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, হাওয়া ভবন খ্যাত বেলায়েত হোসেন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু গ্রুপের সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন- কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবন, আশরাফুল আলম ফকির লিংকন, মো. আব্দুল মাজেদ ও খোকন।

সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মো. মহিউদ্দিন রাজু, জোবায়ের আল মাহমুদ রিজভী, আরিফুল হক ও আব্দুল মোমেন মিয়ার নাম শোনা যাচ্ছে।

সিন্ডিকেট- ৩

ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর রহমান তালুকদার খোকনের অনুসারী সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সাদিক, কে এম সাখাওয়াত হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

সিন্ডিকেট- ৪

বিএনপি প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, নির্বাহী সদস্য হাসান মামুন, ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি রাজিব আহসান, সিনিয়র সহ-সভাপতি মামুনুর রশীদ ও যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন গ্রুপের সভাপতিপ্রার্থী তানভীর রেজা রুবেল ও মামুন খান।

এই গ্রুপের সাধারণ সম্পাদকপ্রার্থী হিসেবে সাইফ আহমেদ জুয়েল, তানজীল হাসান, মিজানুর রহমান সজীব ও আলাউদ্দিন খানের নাম শোনা যাচ্ছে।

সিন্ডিকেট- ৫

ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান মিন্টু গ্রুপের সভাপতিপ্রার্থী আরাফাত বিল্লাহ ও সাজিদ হাসান বাবু।

আকরাম গ্রুপের সাধারণ সম্পাদকপ্রার্থী ইকবাল হাসান শ্যামল।

সিন্ডিকেট- ৬

সাবেক ছাত্রদনেতা আবু সাঈদ ও সদ্য সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ গ্রুপের রুমন, আবু তাহের ও মাহামুদুল আলম শাহিন সাধারণ সম্পাদকপ্রার্থী।

সিন্ডিকেট- ৭

সভাপতিপ্রার্থী আসাদুল আলম টিটু সাবেক ছাত্রনেতা সাঈদ ইকবাল টিটু ও ফেরদৌস মুন্নার অনুসারী।

এই সাত সিন্ডিকেটের বাইরে বিএনপির সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানাও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে প্রভাব বিস্তারে তৎপর রয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

এসব সিন্ডিকেটের বাইরে সভাপতিপ্রার্থী হিসেবে সদ্য বিলুপ্ত ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-বৃত্তি কল্যাণ সম্পাদক মাহামুদুর হাসান বাপ্পী, মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক সর্দার আমিরুল ইসলাম সাগর, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি এবং সাধারণ সম্পাদকপ্রার্থী হিসেবে বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নাদিয়া পাঠান পাপন ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ডালিয়া রহমান তৎপর রয়েছেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ