আসামে ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশিতঃ ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ, শনি, ৩১ আগস্ট ১৯

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। তারপরেই আসামে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হবে। এর মধ্যেই রাজ্যজুড়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। গুয়াহাটিসহ রাজ্যের উত্তেজনাপ্রবণ এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শনিবার দুপুরের মধ্যেই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

রাজ্যজুড়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত ৫১ কোম্পানি সিএপিএফ মোতায়েন করা হয়েছে। শুক্রবার আসামের ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা কুলধর শইকিয়া জানিয়েছেন, রাজ্যে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে ৫১ কোম্পানি সিএপিএফ পাঠিয়েছে কেন্দ্র। আগে থেকেই রাজ্যে ১৬৭ কোম্পানি সিএপিএফ মোতায়েন করা রয়েছে। শান্তি বজায় রাখতে সব রকমের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নাগরিকত্বের তালিকা হালনাগদ করার প্রক্রিয়াটি পর্যবেক্ষণ করছে সুপ্রিম কোর্ট। চূড়ান্ত তালিকাটি আজই প্রকাশ হওয়ার কথা রয়েছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সরকারের দাবি আসামে তাদের কোন নাগরিক নেই। আসামের নাগরিকরা এখন উদ্বেগের মধ্যে আছেন। আজ ৩১ আগস্ট আসামের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা প্রকাশ করা হবে।

রাজ্যজুড়ে থাকা প্রায় ২৫০০ এনআরসি সেবা কেন্দ্রের মধ্যে এক হাজার ২শ কেন্দ্রকে উত্তেজনাপ্রবণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। রাজ্যের মানুষকে সতর্ক করার পাশাপাশি নিরাপত্তার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আসাম পুলিশ। ভুয়া খবর কিংবা সামাজিক মাধ্যমে ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টা করা হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। রাজ্যের মানুষ শান্তি বজায় রাখবেন বলে আশাপ্রকাশ করেছেন কর্মকর্তারা।

খসড়া তালিকা অনুযায়ী, রাজ্যের মোট তিন কোটি ২৯ লাখ বাসিন্দা তাদের নাগরিকত্ব প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন। কিন্তু প্রায় ৪০ লাখ বাঙালি এই তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন। যাদের অধিকাংশই মুসলিম। ভবিষ্যতে আসামের মুসলমানদের ভাগ্যে কী হবে এ নিয়ে চরম উত্তেজনা ও উৎকণ্ঠায় দিন গুনছেন তারা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ