ইরাকে মার্কিন দূতাবাসের কাছে ৩ দফা রকেট হামলা

প্রকাশিতঃ ১১:১১ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ২১ জানুয়ারি ২০

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে তিন দফা রকেট হামলা চালানো হয়েছে। এসব হামলার জন্য ইরান সমর্থিত আধাসামরিক বাহিনীকে দায়ী করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে কোনো পক্ষই এখনও পর্যন্ত এসব হামলার দায় স্বীকার করেনি। এএফপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ইরাকের রাজধানী বাগদাদের গ্রিন জোনে এসব রকেট আঘাত হেনেছে।

তবে ওই হামলার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। রকেট হামলার পর পরই ওই এলাকায় সতর্কতা সাইরেন বাজতে শোনা গেছে।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি ছিলেন জেনারেল সোলেইমানি। ইরানের এই জেনারেলের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়েছে।

তার মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে গত ৮ জানুয়ারি ইরাকে অবস্থিত দুটি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে এক ডজনের বেশি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। এখন পর্যন্ত ইরাকে মার্কিন ঘাঁটি লক্ষ্য করে কয়েক বার হামলার ঘটনা ঘটেছে।

চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের উত্তরাঞ্চলের আল-তাজি বিমান ঘাঁটিতে রকেট হামলা চালানো হয়। যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক সামরিক জোটের সদস্যরা ওই ঘাঁটিতে অবস্থান করলেও এসব হামলায় কোনও হতাহত হয়নি বলে জানানো হয়।

আল-তাজি ঘাঁটিতে হামলার দুদিন আগে বাগদাদের উত্তরাঞ্চলে আরেকটি সামরিক ঘাঁটিতেও রকেট হামলা হয়। এতে ইরাকের সামরিক বাহিনীর অন্তত চার সদস্য আহত হয়। এই ঘাঁটিতেও মার্কিন সামরিক বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি রয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ