উত্তপ্ত দিল্লীর জন্য শেহবাগের আবেগঘন বার্তা

প্রকাশিতঃ ৫:৫৩ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দিল্লি আর শেহবাগ যেন একে অপরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তাই দিল্লির এমন দুর্দিনে বীরেন্দ্র শেহবাগের মন খারাপ। ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বিরোধী ও সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে দিল্লির বিভিন্ন এলাকায়। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রচুর। এরই মধ্যে
কমপক্ষে ২০ জন লোক মারা গেছেন। দেড়শর বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রাখার আবেদন করেছেন শেহবাগ।

‘নজফগড়ের নবাব’ বলা হয় তাঁকে। দিল্লির নজফগড়ে তাঁর জন্ম। ১৯৯৭ সাল থেকে টানা ১৭ বছর তিনি দিল্লির হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলেছেন। আইপিএলে দিল্লি ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলেছেন পাঁচ বছর।

উত্তর-পূর্ব দিল্লির ভজনপুরা, চান্দবাগ ও কারাওয়াল নগরে ব্যাপক সংঘর্ষের খবর মিলেছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, ছয় হাজারের বেশি নিরাপত্তারক্ষী মোতায়েন করা হয়েছে। ফলে এখনই সেনা নামানোর প্রয়োজন নেই। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দিল্লির মানুষের কাছে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন। তবে দিল্লির পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে।

শেহবাগ এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘দিল্লিতে যা ঘটছে, তা সত্যি আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যজনক। সবার কাছে অনুরোধ, মাথা ঠাণ্ডা রাখুন। শান্তি বজায় রাখুন। সংঘর্ষে কেউ আহত হলে বা কারো ক্ষতি হলে এই মহান দেশের গায়ে কালিমা লাগবে। শান্তি ও সুবিবেচনার প্রার্থনা করছি।’

উত্তর-পূর্ব দিল্লির একাধিক জায়গায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। যেখানে পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। অনেক এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। অনেক এলাকায় সরকারি স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তও নিয়েছে প্রশাসন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ