টিএসসিতে শিক্ষার্থীদের উল্লাস
একদিন পিছিয়ে পহেলা ফেব্রুয়ারি সিটি নির্বাচন

প্রকাশিতঃ ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ, রবি, ১৯ জানুয়ারি ২০

সময় জার্নাল প্রতিবেদন : পূজার কারণে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ পুননির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন।

ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনের তারিখ ৩০শে জানুয়ারির বদলে পহেলা ফেব্রুয়ারি ২০২০ নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনিবার বিকালে নির্বাচন কমিশনের একটি বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠকের পর এই তথ্য জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।

তিনি জানান, পরীক্ষা বোর্ডের সঙ্গে আলাপের পর তারা এসএসসি পরীক্ষা দুইদিন পিছিয়ে দিতে রাজি হয়েছে। সে হিসাবে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে তেসরা ফেব্রুয়ারি। আর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন একদিন পিছিয়ে পহেলা ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয় যে, পহেলা ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে তেসরা ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসপি পরীক্ষা শুরু হবে।

গত ২২শে ডিসেম্বর ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

দুই সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনের জন্য ৩০শে জানুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

পরবর্তীতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা আপত্তি তোলেন যে, ৩০ তারিখে সরস্বতী পূজা রয়েছে। সে সময়ে নির্বাচন হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পূজা উদযাপনে সমস্যা হবে। তারা আপত্তি তোলেন, যেহেতু নির্বাচনের সময় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভোট কেন্দ্র হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করা হলেও, সেটি খারিজ করে দেয়া হয়।

নির্বাচনের সময় পরিবর্তনের দাবিতে আন্দোলন ও অনশন শুরু করে হিন্দু শিক্ষার্থীরা।

এ নিয়ে আলোচনার মধ্যেই ছুটির দিন হওয়া সত্ত্বেও শনিবার বিকালে জরুরি বৈঠকে বসে নির্বাচন কমিশন। সেখান থেকেই এই সিদ্ধান্ত এলো।

এদিকে সিটি করপোরেশনের নির্বাচন পেছানোর খবরে টিএসসিতে আনন্দ উল্লাস করে সরস্বতী পূজার দিন নির্বাচন পেছানোর দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

এরপর নির্বাচন পেছানোর দাবিতে অনশণরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙ্গান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আখতারুজ্জামান।

এ সময় উপাচার্য বলেন, গণতান্ত্রিক ও আসম্প্রাদায়িক মুল্যবোধে উজ্জীবিত হয়েই নির্বাচন কমিশন ভোট গ্রহণের দিন পিছিয়ে। এ সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হল এ দেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির।

আন্দোলকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, নির্বাচন পেছনানোর সিদ্ধান্তে অসম্প্রাদায়িক চেতনার বিজয় হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরণের সিদ্ধান্ত না নিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা। পরে তারা একটি বিজয় মিছিল বের করেন।

উল্লেখ্য, আগামী ৩০ জানুয়ারি সরস্বতী পূজার দিনে ঢাকা সিটি করপোরেশন এর দুই সিটির নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে গত বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৯ জন শিক্ষার্থী আমরণ অনশনে বসেছিলেন। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিলেন হিন্দু ধর্মাবলম্বী। অনশনে প্রায় ২৪ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ