এলো মেলো চুলের কাটিংয়ে আটক করবে পুলিশ

প্রকাশিতঃ ১:১৭ পূর্বাহ্ণ, সোম, ১১ নভেম্বর ১৯

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: কমবয়সী ছেলেদের এলো মেলো চুলের কাটিং দেখলেই সাথে সাথে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে পুলিশ সদস্যগন। আটক যুবকদের থানা থেকে ছাড়াতে হলে মুচলেকা দিয়ে মিলবে মুক্তি। এমনই অভিভাকদের সতর্কতা করে দিয়েছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান ।

তিনি বলেন, শহরের মধ্যে কমবয়সী ছেলেরা বেপরোয়া ভাবে মোটরসাইকেল চালায়। যাদের বেশীরভাগ ড্রাইভিং লাইসেন্স, হেলমেট বা গাড়ীর কাগজ নেই। যার ফলে ছেলেরা এক্সিডেন্ট করে কম বয়সে জীবনটা হারায়। অথবা পঙ্গু হয়ে দূর্বিষহ জীবন যাপন করে।

আজ রবিবার (১০শে নভেম্বর) দুপুরে পুলিশ সুপার মিলনায়তনে সুনামগঞ্জ সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমি আমার সন্মানিত অভিভাবকদের বলবো আপনার সন্তানকে কম বয়সে মোটরসাইকেল কিনে দিবেন না। যদি আপনারা এই ভুলটা করেন তাহলে আমার একশন হবে জনগনের স্বার্থে । প্রতিনিয়ত শহরের আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ সর্বদা অভিযান পরিচালনা করছে। রাতের ৯টার পর রাস্তায় কেউ চায়ের দোকানে কোন রকম আড্ডা দেয়া যাবে না।
জনস্বার্থে ফার্মেসি ও মুদি দোকান খোলা থাকবে। পুলিশের কাউকে সন্দেহ হলে শালীনতার মধ্যে চেক করা হবে।

এ মতবিনিময় সভা আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জয়নাল আবেদীন, সুনামগঞ্জ রিপোর্টারস ইউনিটির সভাপতি লতিফুর রহমান রাজু, সহ সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এমরানুল হক চৌধুরী, আজকের সুনামগঞ্জের সম্পাদক আবেদ মাহমুদ চৌধুরী, সুনামকন্ঠের স্টাফ রিপোর্টার ও সিলেটভিউ’র সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি শহীদনূর আহমদ, বাংলা টিভির প্রতিনিধি শাহরিয়ার সুমন, ইনকিলাব প্রতিনিধি কামরুল চৌধুরী, জাগনিউজ প্রতিনিধি মোশাহিদ রাহাদ প্রমুখ।

সময় জার্নাল/ জামাল

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ