এসআলম পরিবারের করোনা জয়

প্রকাশিতঃ ১০:২৩ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ৪ জুন ২০

অবশেষে করোনাভাইরাসকে পরাজিত করে হাসপাতাল থেকে ঘরে ফিরেছেন এস আলম পরিবারের সদস্যরা। পর পর দুই দফায় করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় ওই পরিবারের সাত সদস্যকেই সুস্থ ও আশঙ্কামুক্ত ঘোষণা করেছেন চিকিৎসকরা। এ কারণে বৃহস্পতিবারই (৪ জুন) তারা হাসপাতাল ছেড়ে ঢাকার বাসায় ফিরেছেন।

বর্তমানে এই পরিবারে করোনায় আক্রান্ত রয়েছেন শুধু একজন। তিনি সদ্য প্রয়াত মোরশেদুল আলমের ছেলে মাহমুদুল আলম আকিবের স্ত্রী। ২৮ মে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থেকে দেওয়া নমুনায় তিনি করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। এস আলম পরিবারের ২৪ বছর বয়সী এই পুত্রবধূ সীতাকুণ্ডের সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের মেয়ে।

জানা গেছে, গত ২৪ মে থেকে এস আলম পরিবারের করোনায় আক্রান্ত সাত সদস্য ঢাকার আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালের আইসিইউযুক্ত বিশেষায়িত কেবিনে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। এরপর টানা ১৮ দিন করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করে শেষপর্যন্ত বুধবার (৩ জুন) তাদের সুস্থ বলে ঘোষণা করা হয়।

১৭ মে চট্টগ্রাম নগরীর সুগন্ধা আবাসিক এলাকার ১ নম্বর রোডের বাসায় অবস্থান করা এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম মাসুদের পরিবারের ৬ সদস্য করোনা পজিটিভ রোগী হিসেবে শনাক্ত হন। এরা হলেন এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের পরিচালক ৬২ বছর বয়সী মোরশেদুল আলম, এস আলম গ্রুপের পরিচালক ৬০ বছর বয়সী রাশেদুল আলম, এস আলম গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান ৫৩ বছর বয়সী আবদুস সামাদ লাবু, ইউনিয়ন ব্যাংক ও এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল আলম এবং এস আলম গ্রুপের পরিচালক ৪৫ বছর বয়সী ওসমান গণি ও তার স্ত্রী ফারজানা বেগম।

এর মধ্যেই ২২ মে এস আলম পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্য এবং সাইফুল আলম মাসুদের বড় ভাই মোরশেদুল আলম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডে মারা যান।

অন্যদিকে এর পরদিনই (২৩ মে) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন সাইফুল আলম মাসুদের মা ৮৫ বছর বয়সী চেমন আরা বেগম এবং ২৬ বছর বয়সী ছেলে আহসানুল আলম মারুফও।

বর্তমানে সিঙ্গাপুরে অবস্থান করা এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যানের আগ্রহে করোনায় আক্রান্ত তার মা ও বড় ছেলেকে ২৩ মে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর ২৪ মে করোনায় শয্যাশায়ী অপর চার ভাই ও এক ভাইয়ের স্ত্রীকে আইসিইউযুক্ত অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এর পরপরই তাদের সবাইকে ভর্তি করা হয় ঢাকার ধানমণ্ডিস্থ আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এদিকে, ২৮ মে নতুন করে এস আলম পরিবারে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সদ্য প্রয়াত মোরশেদুল আলমের ছেলে মাহমুদুল আলম আকিবের স্ত্রী। তিনি চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের মেয়ে এবং চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এম মনজুর আলমের নাতনি।

ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডি ল্যাবের নমুনা পরীক্ষায় ২৪ বছর বয়সী এই তরুণী করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হন। গত ২৩ মে তিনি সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার নমুনা দিয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রামে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।