ওসি মোয়াজ্জেমের ৮ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিতঃ ৩:০৩ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৮ নভেম্বর ১৯

সময় জার্নাল ডেস্ক: ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির কথোপকথন ভিডিও করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার দায়ে সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনকে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তাকে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-সামছ জগলুল হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন।

এর আগে সকাল পৌনে ১০টার দিকে ওসি মোয়াজ্জেমকে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়।

গত ২০ নভেম্বর এই মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য করেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক।

চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ দৌলার বিরুদ্ধে নুসরাতকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা করেন তার মা। সেসময় নুসরাতকে আপত্তিকর প্রশ্নের পাশাপাশি তার বক্তব্য ভিডিও করেন ওসি মোয়াজ্জেম। পরে তা ছড়িয়ে দেওয়া হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ওই মামলায় সিরাজ-উদ দৌলাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর কয়েকদিন পর ৬ এপ্রিল আলিম পরীক্ষার আগমুহূর্তে কৌশলে নুসরাতকে মাদ্রাসার ছাদে ডেকে নিয়ে সিরাজের বিরুদ্ধে করা মামলা তুলে নিতে চাপ দেয় দুর্বৃত্তরা।

এতে অস্বীকৃতি জানালে নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যায় তারা। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১০ এপ্রিল চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুসরাত মারা যায়।

এই ঘটনায় করা মামলায় এরই মধ্যে অধ্যক্ষ সিরাজসহ ১৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ফেনীর একটি আদালত।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ