করোনার তাণ্ডবে স্তব্ধ ইতালি, নতুন মৃত্যু ৭১২ জনের

প্রকাশিতঃ ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ, শুক্র, ২৭ মার্চ ২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে ইতালিতে প্রতিদিন নির্দয়ভাবে কেড়ে নিচ্ছে শত শত প্রাণ। মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৭১২ জনের প্রাণ নিয়েছে করোনা। যা বিশ্বের যে কোনো দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ।

এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়েছে। লাশের দেশে পরিণত হয়েছে পুরো ইতালি। দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬ হাজার ২০৩ জন। সবমিলিয়ে করোনায় আক্রান্ত সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়েছে ইতালিতে।

বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টার সর্বোচ্চসংখ্যক করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী মারা গেছে ইতালিতে। আর সর্বোচ্চ আক্রান্ত হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে (১১ হাজারের বেশি)। এরপরের অবস্থানেই ইতালি।

গত এক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে অবিশ্বাস্যহারে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বৃহস্পতিবারের সবশেষ হিসাবে দেখা যায়, ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৫৮৯ জন। আর চীনে আক্রান্ত ৮১ হাজার ৭৮২ জন। আর যুক্তরাষ্ট্র সবাইকে ছাড়িয়ে শীর্ষে, দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ৪০০ জন।

ইতালির ২১টি বিভাগীয় শহরের কেবল লোম্বার্দিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ৩৪ হাজার ৮৮৯ জন। পুরো ইতালির মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ২১৫ জন। সেখানে কেবল লোম্বার্দিয়ায় মৃতের সংখ্যা ৪ হাজার ৮৬১ জন। বৃহস্পতিবার এ অঞ্চলেই মারা গেছে ৩৮৭ জন। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৫৪৩ জন।

এরপরেই এমিলিয়া রোমানিয়া অঞ্চল। সেখানে আক্রান্ত ১০ হাজার ৮১৬ জন এবং মারা গেছে ১ হাজার ১৭৪ জন। ভেনেতো অঞ্চলে আক্রান্ত ৬ হাজার ৯৩৫ এবং মারা গেছে ২৮৭ জন। পিয়েমনতে অঞ্চলে আক্রান্ত ৬ হাজার ৫৩৪ এবং ৪৪৯ জন মারা গেছেন।

তোসকানা অঞ্চলে আক্রান্ত ৩ হাজার ২২৬ জন এবং মারা গেছে ১৫৮ জন। মার্কে অঞ্চলে আক্রান্ত ৩ হাজার ১১৪ এবং ৩১০ জন মারা গেছে। লিগুরিয়া’তে আক্রান্ত ২ হাজার ৫৬৭ জন এবং মারা গেছে ২৮০ জন। ট্রেনতিনো’তে আক্রান্ত ২ হাজার ২০৩ জন এবং মারা গেছে ১৩৪ জন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ