কারফিউ ভেঙে আসামে রাস্তায় মানুষ, চলছে বিক্ষোভ

প্রকাশিতঃ ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ১২ ডিসেম্বর ১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাসের প্রতিবাদে কারফিউ ভেঙে বিক্ষোভ করেছেন আসামের সাধারণ মানুষ। বৃহস্পতিবার বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গুয়াহাটির লতাশিল ময়দানে মানুষের সমাবেশ ছিল।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, বিক্ষোভ থামাতে আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। টুইট করেছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীও। তাতেও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) নিয়ে বিক্ষোভ থামানো গেল না আসামে। বরং কারফিউ ভেঙেই এবার রাজ্যের গুয়াহাটির রাস্তায় নেমে এলেন সাধারণ মানুষ। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপস্থিতিতেই জায়গায় জায়গায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তারা। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে চলছে স্লোগানও।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে বুধবারই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল আসাম। কোনো সংগঠন ছাড়া সাধারণ মানুষ এবং শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। তবে এ দিন আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছে অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (আসু) এবং কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি (কেএমএসএস)। সাধারণ মানুষকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আর্জি জানিয়েছেন তারা।

এদিন আসুর পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায়ও গুয়াহাটির লতাশিল ময়দানে মানুষের সমাবেশ চলছে। এজন্য সকলকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আর্জি জানাচ্ছি আমরা।’’

এমন পরিস্থিতিতে এয়ার ইন্ডিয়া, ইন্ডিগো, স্পাইসজেট, ভিস্তারা, গো এয়ার-সহ বেশ কিছু সংস্থা আসাম বিমানবন্দর থেকে তাদের একাধিক বিমানের উড়ান বাতিল করেছে। বাতিল করা হয়েছে বেশ কিছু বিমানের অবনমনও।

এয়ারপোর্ট অথরিটি অব ইন্ডিয়ার উত্তর-পূর্ব শাখার একজিকিউটিভ ডিরেক্টর সঞ্জীব জিন্দল বলেন, ‘‘ডিব্রুগড়ে ৯টি বিমানের উড্ডায়ন বাতিল করা হয়েছে। বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় কোনও ট্যাক্সিও পাওয়া যাচ্ছে না, যার ফলে বুধবার যারা বিমানবন্দরে পৌঁছেছিলেন, তারা এখনও আটকে আছে।’ সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ