কুবি বন্ধুর ৪র্থ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা

প্রকাশিতঃ ৪:৫০ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২৯ অক্টোবর ১৯

কুবি প্রতিনিধি: “যদি করি সেচ্ছায় রক্তদান, বাঁচবে জীবন বাঁচবে প্রাণ” এই শ্লোগানে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) রক্তদাতা সংগঠন বন্ধু’র ৪র্থ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাডমিন্টন কোর্টে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.এমরান কবির চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তেব্যে উপাচার্য বলেন, “রক্ত দেয়া একটি মহৎ ও প্রকৃত সাহস এর কাজ। তাই রক্ত দেয়ার জন্য সাহস থাকতে হয়। যারা রক্ত দেয় তারাই প্রকৃত বীর। যারা নিজের শরীরের রক্তদিয়ে সাহায্য করে তারাই প্রকৃত সফল। সফলতা সবাই পাই না। জীবনে যারা সেকরিফাইজ করতে পারে তারাই সফলকাম হতে পারে।”

আসমা উল হক মীম ও মাহফুজুর রহমান এর যৌথ সঞ্চালনায় দুই পর্বের অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিলো ‘স্বাস্থকথা- ২’ নামক একটি সেমিনা।সেখানে অস্টিওপোরোসিস ও হাড়ের সুরক্ষা ব্যাপারে আলোকপাত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডাঃ মাহমুদুল হাসান খাঁন (সোহাগ)। এই আলোচনার উপর নির্ভর করে একটি কুইজ অনুষ্ঠিত হয় হয় এবং কুইজ পরীক্ষায় সর্বোচ্চ মার্ক প্রাপ্ত তিনজনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

দ্বিতীয় পর্বে এক র‍্যালীর আয়োজন করা হয়। র‍্যালীর পর বন্ধু কুবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীকে আরো সু-মধুর করতে কেক কাটা হয়। কেক কাটার পরপরই শুরু হয় অনুষ্ঠানের মূল পর্ব আলোচনা সভা।

বন্ধুর সভাপতি মোঃ আশরাফুল রহমান ভুঁইয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোঃ শামিমুল ইসলাম, প্রক্টর এবং বন্ধুর উপদেষ্টা ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, উপদেষ্টা মো. হারুন, মো.আবু বকর সিদ্দিক।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ