ক্যাসিনো থেকে আ’লীগের মন্ত্রী-এমপিসহ নেতাকর্মীরা ভাগ পেত: মওদু

প্রকাশিতঃ ৩:১৬ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৪ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: ক্যাসিনো ব্যবসায় আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রী-এমপিসহ বিভিন্ন নেতাকর্মীরা ভাগ পেত বলে তাদের ধরেনি এতদিন। এখন কোনো একটা গোলমাল ও অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণে বিষয়টা ফুটে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

জড়িত বলে তিনি বলেন, ‘সবাই এগুলো (ক্যাসিনো) থেকে শেয়ার পেত। এ কারণে তারা (সরকার) । ’

আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন মওদুদ।

ক্যাসিনো অভিযানকে ‘আইওয়াস’ মন্তব্য করে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘‘অভিযান চালিয়ে যাবেন’’, স্বাগত জানাই। কিন্তু আপনি আপনার সরকারের সাবেক মন্ত্রী, বর্তমান মন্ত্রী এবং সাবেক এমপি ও বর্তমান এমপিদের সম্পদের হিসাব বাংলাদেশের মানুষের কাছে উপস্থাপন করুন। তাহলে বুঝবো, আপনি সত্যিকার অর্থেই এই অভিযান চালাতে চান।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘ক্যাসিনোর সাথে প্রশাসন, রাজনীতিবিদ, আওয়ামী লীগের নেতা ও মন্ত্রী-এমপিরা জড়িত। এর সাথে পুলিশের কর্মকর্তারাও জড়িত ছিলেন। এগুলো তা না হলে কি করে এই প্রতিষ্ঠানগুলো প্রসার লাভ করেছে?’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দুর্নীতি ও মাদকবিরোধী অভিযান ২০০৯ সালে কেন করেন নাই? কেন ১১-১২ বছর পর এই অভিযান? আর মাদকবিরোধী অভিযান এত পরে কেন? কারণ, তার (প্রধানমন্ত্রী) কর্মীদের দুর্নীতি ও মাদক দ্রব্যের মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকা অর্জন করে দেওয়ার জন্য।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘বেগম জিয়া তার মুক্তির জন্য কারো কাছে মাথা নত করবেন না। তিনি বাংলাদেশের ১৬-১৭ কোটি মানুষের নেতা। হয় তার মুক্তি আইনি প্রক্রিয়ায় হবে। আর তা নাহলে জনতার আন্দোলনের মাধ্যমে তার মুক্তি হবে। অন্য কোনো পথে তার মুক্তি হবে না।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ