গাজীপুরে মায়ের হাতে মেয়ে খুন, স্বামীসহ আটক ২

প্রকাশিতঃ ৩:০৬ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুর সিটির বাসন থানার মোগরখাল এলাকায় সোমবার রাত ১০টার দিকে মেয়ের সঙ্গে মা রত্নার কথা কাটাকাটি শুরু হলে মা মেয়ের গলায় থাকা ওড়না টেনে ধরলে শ্বাস বন্ধ হলে মেয়ে নীলা মাটিতে পড়ে মারা যায়।

এ ঘটনায় নগরের বাসন থানার ওসি এ কে এম কাউসার চৌধুরী জানান। নিহত নীলা খাতুন (২০) শেরপুরের শ্রীবর্দী থানার চরপাড়া এলাকার হাবিব উল্লাহর ছেলে নয়ন মিয়ার (৩১ )স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি পাবনার চাটমোহর থানার বিন্নাবাড়ি গ্রামে।

নীলা স্বামীর সঙ্গে গাজীপুরের মোগরখাল এলাকায় মো. কবির হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

ওসি বলেন, এক বছর আগে নয়নের সঙ্গে নীলার বিয়ে হয়। নীলা নয়নের দ্বিতীয় স্ত্রী। কয়েক মাস আগে নয়ন মোগরখাল এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতে শুরু করেন। আর নীলার মা রত্না বেগম (৩৫) পাশের চান্দনা এলাকায় একটি বাসায় পরিবারের সঙ্গে থেকে স্থানীয় এক পোশাক কারখানায় চাকরি করেন।

সম্প্রতি স্ত্রী নীলার পরকীয়া সম্পর্কের জেরে তার দাম্পত্য জীবনে কলহ শুরু হয়। এ নিয়ে নয়ন স্ত্রীর বিরুদ্ধে শাশুড়ির কাছে অভিযোগ করেন।এ বিষয়ে আলোচনা করতে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রত্না কারখানা থেকে বেরিয়ে মেয়ের বাসায় যান।
ওসি বলেন এ সময় নয়নের সামনে মেয়ের সঙ্গে রত্নার কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে রত্না মেয়ের গলায় থাকা ওড়না টেনে ধরলে শ্বাস বন্ধ হয়ে নীলা মাটিতে পড়ে যায়।
“তাকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

পরে রাতেই পুলিশ রত্না ও নয়নকে গ্রেপ্তার করে বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ