গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়া মোড়ে বঙ্গবন্ধু চত্বর ঘোষণার দাবী

প্রকাশিতঃ ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, রবি, ২২ মার্চ ২০

গোপলগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়া মোড়ে বঙ্গবন্ধু চত্বর হিসেবে ঘোষণার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী। মুজিব জন্মশতবার্ষিকীতে জনগণের এ দাবী কার্যকর করার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের জেলা সভাপতি ড. আলীমুজ্জামান চৌধুরী।

আবেদনে বলা হয়, সদর উপজেলার গোবরা ইউনিয়নের ঘোনাপাড়া মোড় একটি ঐতিহ্যবাহী এলাকা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শৈশব ও কৈশোরের সম্পর্ক জড়িয়ে রয়েছে। টুঙ্গিপাড়া থেকে গোপালগঞ্জে যাওয়া আসার পথে প্রায় তিনি গোবরায় আসতেন।

এলাকার মানুষের সাথে বঙ্গবন্ধুর গড়ে ওঠে ছিল নীবিড় সম্পর্ক। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে এ অঞ্চলের মানুষ সবসময় ছিল অগ্রভাগে। মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ডাকে তারা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন ও পাঁচ জন শহীদ হন।

গোবরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জিকরুল ফকির বলেন, বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর দীর্ঘদিন ধরে এ অঞ্চলের মানুষ ছিল চরম অবহেলিত।

শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হবার পর এখানে উন্নয়নের ছোয়া লাগে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, এসেনসিয়াল ড্রাগস ফ্যাক্টরী, বেগম ফজিলাতুন্নেসা চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, টেকনিক্যাল স্কুল, শেখ রেহানা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, ডিপ্লোমা ইন প্রাইমারি এডুকেশন, শেখ লূৎফর রহমান ডেন্টাল কলেজ, ট্রমা সেন্টারসহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেছে।

জেলার মধ্যে গোবরা ইউনিয়নের ঘোনাপাড়া এখন সবচেয়ে আকর্ষণীয় ও গুরুত্বপূর্ন এলাকা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

এরপরও বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত ঘোনাপাড়া মোড় এখানকার মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি। এ অঞ্চলের মানুষের প্রাণের দাবী ঘোনাপাড়া মোড়ের নামকরণ বঙ্গবন্ধু চত্বর করা হোক।

গোবরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুল রহমান চৌধূরী টুটুল বলেন, ঘোনাপাড়া মোড় বর্তমানে দক্ষিণাঞ্চের মানুষের যোগাযোগের মিলনস্থল। পিরোজপুর, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও খুলনা অঞ্চলের যাত্রীরা ঢাকা-খুলনা মহসড়ক দিয়ে রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগ ও যাওয়া আসা করে। ফলে ঘোনাপড়া মোড় এখন কয়েকটি জেলার মিলনস্থল।

জাতির পিতার স্মৃতি ধন্য ঘোনাপাড়ার মোড় বঙ্গবন্ধু চত্বর করা হলে নামকরণ সার্থক হবে এবং জনগনের প্রত্যাশা পূরণ হবে।

সময় জার্নাল/সালেহ আহমেদ

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ