চাঞ্চল্যকর অপরাধগুলোর বিচারে অগ্রাধিকার : আইনমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ৭:১৮ অপরাহ্ণ, রবি, ১৩ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলাটি যতটুকু অগ্রাধিকার দিয়ে শেষ করা উচিত ততটুকু অগ্রাধিকার দিয়েই শেষ করবে সরকার। এমন মন্তব্য করেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। আবরার ফাহাদ হত্যা মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, চাঞ্চল্যকর অপরাধগুলোর অগ্রাধিকার দিয়েই বিচার করা হচ্ছে।

আজ রোববার (১৩ আক্টোবর) বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদের ৩০ বছর পূর্তি ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত শিশু সংলাপ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, অনেক ক্ষেত্রে (যেমন গুলি করে) এক সেকেন্ডই একজন মানুষকে খুন করা যায় কিন্তু তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় সাজা দিতে একটি সময় লাগে।তবে অত্যন্ত অল্প সময়ে আইনি সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে রাজন হত্যার মামলাসহ সুরাইয়া আক্তার রিশা হত্যা মামলার সাজা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আগামী ২৪ অক্টোবর নুসরাত হত্যা মামলার রায় হবে এবং কিছু দিনের মধ্যেই হাজী রমিজ উদ্দিন স্কুলের দুই শিক্ষার্থীকে বাস চাপায় হত্যা মামলার রায় হবে। শেখ হাসিনার সরকার সমাজে এরকম অপরাধ হোক চাই না বলেই অত্যন্ত অল্প সময়ে আইনি সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেই মামলাগুলোর সাজা হচ্ছে।

আবরার হত্যাকান্ডের বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, এ হত্যাকান্ড মর্মান্তিক। আমাদের সমাজে এটা হওয়া উচিত নয় এবং এটা যাতে আর না হয় সেরকম বিচারিক ব্যবস্থা সরকার নিবে।বহুদিন আগে বুয়েটে একজন শিক্ষার্থীকে হত্যা করা হয়েছিল তার বিচার কিন্তু আজ পর্যন্ত হয়নি। সেটার দাবীও আপনারা তোলেন। সরকার সে বিচারও করবে।

চাইল্ড পার্লামেন্টের স্পিকার মারিয়াম আক্তার জিম-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মিজ কামরুন নাহার।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ