ছাত্রলীগ নেতা হতে চাইলে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা দিতে হবে

প্রকাশিতঃ ৮:৫১ অপরাহ্ণ, বুধ, ১৮ সেপ্টেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: ছাত্রলীগের বিভিন্ন শাখা কমিটির নেতৃত্বে আসার জন্য ৬০ নম্বরের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার মন্ত্রীর এ নির্দেশনার কথা পদ প্রত্যাশীদের জানিয়ে দিয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগ নেতারা।

নেতা নির্বাচনের জন্য ব্যতিক্রমী এই পরীক্ষার মাধ্যমে একটি নতুন অধ্যায়ের সৃষ্টি হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। জেলার কসবা ও আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন শাখা কমিটিতে পদ প্রত্যাশীদের এই পরীক্ষা নেওয়ার জন্য বলেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

জানা গেছে, আইনমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন-আদর্শ সম্পর্কে ভালো করে জেনে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েই ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসতে হবে। এ জন্য ওই ইউনিয়নগুলোতে পদ প্রত্যাশীদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন মন্ত্রী। উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাদের মাধ্যমে মন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ‘কারাগারের রোজনামচা’ ও ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বই পড়া শুরু করেছেন পদপ্রত্যাশীরা। ওই দুইটি বই থেকেই পরীক্ষায় প্রশ্ন আসবে বলে পদপ্রত্যাশীদের জানানো হয়েছে।

৫টি ইউনিয়ন ও জংশন শাখা সম্মেলনের প্রস্তুতি হিসেবে সভাপতি ও সম্পাদক পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে ফরম বিক্রি শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে ৪০টি ফরম বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে।

আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহবুদ্দিন বেগ শাপলু বলেন, সৃজনশীল পদ্ধতিতে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। এছাড়াও নেওয়া হবে মৌখিক পরীক্ষাও। সব মিলিয়ে ৬০ নম্বরের পরীক্ষা হতে পারে।

তিনি বলেন, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়ার পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকেই নেতা নির্বাচিত করা হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ