জাবিতে আন্দোলনকারীদের ‍উপর হামলা

প্রকাশিতঃ ২:৩০ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ৫ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের বাসভবন অবরোধকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার দুপুরে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আধা ঘণ্টাব্যাপী আন্দোলনকারীদের মারধর করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এতে অন্তত ৮ শিক্ষকসহ ২৫ জন শিক্ষার্থী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় চার সাংবাদিককেও মারধর করা হয়। আহতদের অনেককেই তাৎক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা নেতাকর্মীসহ মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আসেন। এরপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে এসেই আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালান। এ সময় তারা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের টেনে হিঁচড়ে বাসভবনের সামনে থেকে তুলে দেন। এছাড়া তারা অবরোধকারী ছাত্রীসহ প্রায় ১৫ জন শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করেন। তাছাড়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা আন্দোলনকারী প্রায় আটজন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করেন। শিক্ষকদের কয়েকজনকে টেনে হিঁচড়ে সরিয়ে দেওয়া হয়। এরপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। পরে ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীর প্রটোকলে উপাচার্য গাড়িতে করে বাসভবন ত্যাগ করেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষক অধ্যাপক খবির উদ্দিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে এরকম ন্যাক্কারজনক ঘটনা আমরা দেখিনি। উপাচার্যপন্থি শিক্ষকদের উস্কানিতে ছাত্রলীগ হামলা চালিয়েছে। ছাত্রলীগ যখন আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে তখন উপাচার্যপন্থি শিক্ষকরা হাততালি দিয়ে তাদেরকে স্বাগত জানিয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলাম। তবে যেভাবে মিছিল এসেছে, তাতে আমাদের কিছু করার ছিল না। তবে বড় ধরণের কিছু যাতে না ঘটে সেজন্য তৎপর আছি। আর কেউ আহত হয়েছে কিনা জানা নেই।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ