টানা তৃতীয় মেয়াদে দিল্লি জয়ের পথে কেজরিওয়ালের এএপি

প্রকাশিতঃ ৭:১০ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের দিল্লি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় বসতে যাচ্ছেন আম আদমি পার্টির (এএপি) শীর্ষ নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ভোট গণনার প্রাথমিক ফলেও রাজ্যে আম আদমি পার্টির নিরঙ্কুশ জয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

ভোটের তিন দিন পর মঙ্গলবার সকাল ৮টায় গণনা শুরু হয়। প্রথম দিকে বিজেপি এগিয়ে থাকলেও সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন কেন্দ্রে এগিয়ে যেতে থাকে এএপি। বেলা আড়াইটা পর্যন্ত ৭০টি আসনের মধ্যে আম আদমি পার্টি ৫৮টিতে এগিয়ে রয়েছে। আর বিজেপি ১২টি আসনে জয়ের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। দিল্লির মসনদে বসতে কোনো দলের দরকার ৩৬ আসনের।

দিল্লির ৭০ আসনে মোট প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬৭২ জন প্রার্থী। এএপি সব আসনেই প্রার্থী দিয়েছে। বিজেপি লড়ছে ৬৭ আসনে, বাকি তিনটিতে তাদের জোট শরিক জেডিইউ ও এলজেপি প্রার্থী আছে। এছাড়া ৬৬ আসনে কংগ্রেস ও বাকি চারটি আসনে জোটসঙ্গী আরজেডি প্রার্থী দিয়েছে।

শনিবারের ভোটের পর সব বুথফেরত জরিপই বলেছে, এবারও ভোটে জিতে ক্ষমতায় আসছে আম আদমি পার্টি। এতে ৫৬টি আসন এএপি ও ১৪ আসন বিজেপি জিতবে বলে আভাস দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেসসহ অন্যদের ভাগে পড়েছে শূন্য।

গত শনিবার অনুষ্ঠিত দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভোটার পড়েছিল ৬২ দশমিক ৫৯ শতাংশ।

২০১৫ সালে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে ৭০টি আসনের মধ্যে ৬৭টিতে জয় পেয়েছিল এএপি। আর ক্ষমতাসীন দল বিজেপি পেয়েছিল মাত্র তিনটি আসন।

বিজেপির আসন বাড়লেও এবারও ধর্মীয় মেরুকরণ, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ), জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি), জাতীয় জনসংখ্যা রেজিস্টারের (এনপিআর) ধাক্কায় দিল্লি জয়ের স্বপ্ন অধরাই থেকে গেল বিজেপির কাছে। অন্যদিকে, ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে গেল কংগ্রেস। সূত্র: এনডিটিভি

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ