'ক্যাসিনোমুক্ত’ নেতৃত্ব চায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ
ঢাকা উত্তরে এগিয়ে সাচ্চু

প্রকাশিতঃ ৬:০৫ অপরাহ্ণ, বুধ, ১৬ অক্টোবর ১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:  আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এক মাস পর। দীর্ঘ প্রায় ৯ বছর পর তা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অপর দিকে সংগঠনটির ঢাকা মহানগর কমিটির সম্মেলন হতে যাচ্ছে ১৩ বছর পর। এই সম্মেলন ঘিরে এরই মধ্যে নেতাকার্মীদের কাছে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। ক্যাসিনো কান্ডের পর বিতর্ক মুক্ত কমিটি গঠন করতে চায় আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড।

আগামী ১৬ নভেম্বর স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে ১১ ও ১২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে সংগঠনটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তরের সম্মেলন। ২০১২ সালে ১১ জুলাই স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটিতে সভাপতির দায়িত্ব পান মোল্লা আবু কাওছার আর সাধারণ সম্পাদক হন পঙ্কজ দেবনাথ। ক্যাসিনো ইস্যুতে কিছুটা বিতর্কের মধ্যে উভয়ই।

পদপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সংগঠনটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের লড়াইয়ে অন্তত এক ডজনেরও বেশি নেতা পদপ্রত্যাশা করছেন। এবার শীর্ষ দুটি পদে আলোচনায় আরো আছেন তারা হলেন- স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্তমান সহ-সভাপতি ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ, সহ-সভাপতি মঈন উদ্দীন মঈন, আফজালুর রহমান বাবু। সাধারণ সম্পাদক পদে স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্তমান যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব গাজী মেজবাউল হক সাচ্চু। সাচ্চু ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহত । অত্যন্ত জনপ্রিয় সংগঠক। ১/১১ পরবর্তী সময়ে শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে ।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু বলেন, ইতোমধ্যে সম্মেলন উপলক্ষে ১২ উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২৬ অক্টোবর বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়েছে। এতে সারা দেশের জেলা ও মহানগর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আসবেন।

নেতাকর্মীরা বলছেন, এবাবের শুদ্ধি অভিযানের পর আশা করা হচ্ছে সবচেয়ে ‘ক্লিন ইমেজের’ প্রার্থীরা নেতৃত্বে আসবেন। তারাই সংগঠনকে ঢেলে সাজাবেন। শক্ত একটি বার্তা কাঁধে নিয়েই সামনের দিনে দলকে গোছাবেন।

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তরের স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা আমজাদ হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর মত আমারও এবার মাঠের পরিশ্রমী ও কর্মীবান্ধন নেতৃত্ব চাই। যারা এতদিন দলের বিপদে আপদে ছিলেন তারা নেতৃত্বে সংগঠন উপকৃত হবে।

১৯৯৪ সালের ২৭ জুলাই ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের সাবেক নেতাদের সমন্বয়ে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। বর্তমানে আওয়ামী লীগের অন্যংতম সহযোগী সংগঠন এটি।

প্রসঙ্গত, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ১১ নভেম্বর রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে এবং ১২ অক্টোবর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে ঢাকা মহানগর উত্তরের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। নেতৃত্ব নির্বাচনে সারাদেশের ২২০০ নেতা কাউন্সিলে উপস্থিত থাকবেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ