ত্যাগে ও আনন্দে মধ্যপ্রাচ্যে ঈদুল আজহা উদযাপন

প্রকাশিতঃ ১:০৫ অপরাহ্ণ, রবি, ১১ আগস্ট ১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ত্যাগে ও আনন্দে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে উদযাপন হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা।

রোববার স্থানীয় সময় ভোর থেকে দেশগুলোতে ঈদের জামাতে সমাবেত হন লাখো মানুষ। নামাজ আদায়ের পর মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহ ও বিশ্বের শান্তি কামনা করা হয়।

সৌদির পবিত্র শহর মক্কা, মদিনাসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধনী-গরিব সব শ্রেণির মানুষ এক কাতারে ঈদ নামাজ আদায় শেষে নিয়ম মেনে শুরু হয় পশু কোরবানি।

গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবি, দুবাই, শারজাহর বিভিন্ন মসজিদে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোর থেকে বাহারি পোশক পরে এসব জামাতে অংশ নেন হাজার হাজার মানুষ।

সূর্য ওঠার আগেই দেশগুলোর বিশাল ঈদগাহ ময়দান কানায় কানায় পরিপূর্ণ হওয়ায় মুসল্লিরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে নামাজ আদায় করেন।

সাধারণত ফজরের নামাজের পর থেকে সকল মসজিদে আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, ওয়া লিল্লাহিল হামদ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে আমিরাতের প্রতিটি মসজিদ।

আবুধাবিতে ৬টা ১২ মিনিটে, আল আইনে ৬টা ৬ মিনিটে, শারজায় ৬টা ৬ মিনিটে, আজমানে ৬টা ৬ মিনিটে, ফুজাইরায় ৬টা ৪ মিনিটে, উম্মে আল কুইনে ৬টা ৬ মিনিটে ও রাস আল খাইমায় ৬টা ৪ মিনিটে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে মুসলমানদের বড় ধরনের এ উৎসব ঘিরে মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিটি দেশেই নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। দেশগুলোর নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে জানা গেছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ