দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণ শেষে হত্যা: আটক ১

প্রকাশিতঃ ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ, রবি, ২ ফেব্রুয়ারি ২০

চুৃয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ৭ বছর বয়সী শিশু সুমাইয়াকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার মধ্যরাতে পারকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠের একটি শিমবাগান থেকে সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত সুমাইয়া পারকৃষ্ণপুর গ্রামের নাসির উদ্দিনের মেয়ে। সে ছয়ঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় ধর্ষণের অভিযোগে গ্রামের মোমিনুল ইসলাম নামে এক বখাটে যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাসূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপুর ১২টার দিকে সুমাইয়া স্কুল থেকে বাড়ি ফেরে। পোশাক পাল্টে বাড়ি থেকে সে খেলার জন্য বেরিয়ে পড়ে। বিকাল পর্যন্ত তার দেখা না মেলায় বাড়ির লোকজন খুঁজতে থাকে। রাতে করা হয় মাইকিং। গভীর রাতে গ্রামের আয়ুব আলীর শিম বাগানে সুমাইয়ার বিবস্ত্র লাশ পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসী পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে দামুড়হুদা থানায় নিয়ে আসে। আজ রবিবার তার ময়দা তদন্ত ও ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস সময় জার্নালকে জানান, ‘ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে ধর্ষণ শেষে শিশু সুমাইয়াকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ