নাগরিকত্বের কোনো কাগজপত্র নেই স্বয়ং মোদিরও!

প্রকাশিতঃ ৪:৩৪ অপরাহ্ণ, রবি, ১ মার্চ ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যে লংকাকাণ্ড চলছে, তার মধ্যে চমকে দেয়ার মতো তথ্য দিয়েছে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (পিএমও)। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নাগরিকত্বের কোনো কাগজপত্র নেই। জন্মসূত্রেই তিনি ভারতীয়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তথ্য অধিকার আইনে (আরটিআই) মোদির নাগরিকত্ব নিয়ে এক ব্যক্তির প্রশ্নের জবাবে পিএমও এ তথ্য দিয়েছে।

কাগজপত্রের অভাবে নাগরিকত্ব তালিকায় (এনআরসি) নাম তুলতে না পেরে অনিশ্চিত জীবনযাপন করছে আসামের হাজার হাজার মানুষ। আত্মহত্যাও করেছেন অনেকে। বন্দিশিবিরে আটক রয়েছেন বহু মানুষ।

কাগজপত্র জোগাড় করতে না পেরে এনআরসি আতঙ্কে পশ্চিমবঙ্গে বেশ কয়েকজন আত্মহত্যা করেছেন। এরই মধ্যে খোদ প্রধানমন্ত্রী মোদির নাগরিকত্বের কাগজপত্র না থাকার তথ্য দিয়েছে পিএমও। অথচ এনআরসি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় আসে বিজেপি সরকার।

জানা গেছে, গত ১৭ জানুয়ারি শুভঙ্কর সরকার নামে এক ব্যক্তি আরটিআইয়ের মাধ্যমে জানতে চান প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্বের কাগজপত্র রয়েছে কিনা।

জবাবে পিএমও সচিব প্রবীণ কুমার জানান, ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনের ৩ ধারা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী জন্মসূত্রেই ভারতীয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এর আগে একাধিকবার জানিয়েছে, ২০১১ ও ২০১৫ সালের জাতীয় জনগণনাপঞ্জি প্রক্রিয়ার পর দেয়া পরিচয়পত্র যাদের কাছে নেই, তারা নাগরিক নন। দেশের মানুষের বড় অংশের কাছেই সেই পরিচয়পত্র নেই।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ