নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিপক্ষের বাধার অভিযোগ তাবিথের

প্রকাশিতঃ ১২:৫২ অপরাহ্ণ, রবি, ১২ জানুয়ারি ২০

নিউজ ডেস্ক: জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে কর্মীদের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। প্রচারণায় বাধা দেওয়ার বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন বলে জানান তিনি।

রোববার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে মিরপুর শাহ আলী মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে তৃতীয় দিনের প্রচারণা শুরুর পর এ অভিযোগ জানান তিনি।

এসময় তাবিথ বলেন, আমরা ইতোমধ্যে নাগরিক সমস্যার ১২ জায়গা চিহ্নিত করেছি। জয়ী হলে ১২ জায়গায় আমরা সমন্বয় ও গুরুত্বের ভিত্তিতে একযোগে কাজ শুরু করবো। ডেঙ্গু, পানি, পয়োনিষ্কাশন ও যানজটের মতো বাসা ভাড়াও ঢাকার বাসিন্দাদের জন্য একটি বড় সমস্যা। এ লড়াইয়ে জয়ী হতে পারলে ঢাকার নাগরিক সমস্যার সমাধানে কাজ করা সহজ হবে।

বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আওয়মীলীগের কর্মীদের মাধ্যমে বাধা প্রাপ্ত হচ্ছেন অভিযোগ করে বলেন, প্রতিপক্ষের লোকজন জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে আমাদের প্রচারণায় বাধা দেয়। এ সময় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এতে আল আমিন নামের এক কর্মী আহত হয়েছে। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে প্রচারণা চালাতে চাই, কিন্তু পারছি না। গতকালও এক কর্মীর ওপর হামলা হয়েছে, বিষয়টি ইসিকে জানাব।

তিনি বলেন, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি স্তর ‘দুর্নীতিতে ভরে গেছে।’ নির্বাচিত হলে সবার আগে দুর্নীতি দমনে কাজ করার কথা জানিয়েছেন তিনি।

তাবিথ আরও বলেন, পুলিশের মামলা হবে, আওয়ামী লীগের ক্যাডারদের হামলা হবে। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ না।

এ সময়ে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন দুলু, ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মাসুদ খান, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, স্বেচ্ছাসেবক দল উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন, সাধারণ সম্পাদক রেজোওয়ান ইসলাম রিয়াজসহ বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ