ন্যাম সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ৭:৩৪ অপরাহ্ণ, শুক্র, ২৫ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন-ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার সকালে আজারবাইজানের বাকু কংগ্রেস সেন্টারে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলনের উদ্বোধন হয়।

সকালে বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানরা সম্মেলনস্থলে পৌঁছালে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ তাদের স্বাগত জানান। এরপর অতিথিদের নিয়ে ফটোসেশনের পরই শুরু হয় অষ্টাদশ সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশন।

ন্যামের অষ্টাদশ এ সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানদের পাশাপাশি পর্যবেক্ষক হিসেবে থাকা ১৭টি দেশ ও ১০ আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা।

অধিবেশনের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন ন্যামের বিদায়ী চেয়ারম্যান ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। এরপর বক্তব্য দেন নতুন চেয়ারম্যান ইলহাম আলিয়েভ।

ইরানের প্রেসিডেন্ট, কিউবার প্রেসিডেন্ট, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী, জিবুতির প্রেসিডেন্ট, ঘানার প্রেসিডেন্ট, নেপালের প্রধানমন্ত্রী, পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট, ভারতের উপরাষ্ট্রপতি, তুর্কেমিনিস্তানের প্রেসিডেন্ট, বসনিয়া-হার্জেগোভিনায় প্রেসিডেন্সির চেয়ারম্যান, আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট ও লিবির প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন উদ্বোধনী অধিবেশনে।

এদিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদলের প্রধানদের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা। আর সন্ধ্যায় যোগ দেবেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভের দেওয়া নৈশভোজে।

এর আগে সম্মেলনে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার রাতে আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সফরে তিনি থাকছেন হিলটন বাকু হোটেলে।

শনিবার সম্মেলনের পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা। পরে প্রতিনিধি দলের প্রধানদের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ এবং সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তিনি। এছাড়া সন্ধ্যায় আজারবাইজানে বাংলাদেশের দূত হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের আমন্ত্রিত নৈজভোজে অংশ নেবেন তিনি। সফর শেষে রোববার সন্ধ্যায় তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

১২০টি উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে গড়ে ওঠা ৫৮ বছরের পুরনো ন্যাম জোটকে জাতিসংঘের পর সবচেয়ে বড় ফোরাম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ন্যামভুক্ত দেশগুলোতেই বিশ্বের শতকরা প্রায় ৫৫ ভাগ মানুষ বসবাস করে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ