বিএনপি-জামায়াত করলে কেউ মুক্তিযোদ্ধা থাকে না : মুনতাসির মামুন

প্রকাশিতঃ ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৫ ডিসেম্বর ১৯

দিনাজপুর সংবাদদাতা : বিএনপি করলে বা জামায়াত করলে কেউ মুক্তিযোদ্ধা থাকে না উল্লেখ করে ইতিহাসবিদ ড. মুনতাসীর মামুন বলেছেন, ‘যদি আপনি বলেন আমি মুক্তিযোদ্ধা ছিলাম, কিন্তু আপনি মুক্তিযোদ্ধা থাকলে তো মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের দল ছাড়া অন্য দল করতে পারেন না। তাহলে মুক্তিযোদ্ধা থাকলেন কোথায়’।

বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জের সাতোর ইউনিয়নের চৌপুকুরিয়া মাঝাপাড়া এবং নিজপাড়া ইউনিয়নের দামাইক্ষেত্র গণহত্যার স্মৃতিফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী সামনে রেখে দিনাজপুরে বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনীর ১০০ দিনের কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন।

ড. মুনতাসীর মামুন বলেন, বাংলাদেশ একটি অদ্ভুত দেশ। যেখানে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি আছে, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিও আছে। পৃথিবীর কোথাও এ রকম নেই। কারণ কোনো দেশ স্বাধীন হয়ে গেলে সেখানে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি আর থাকে না।

মুনতাসীর মামুন বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় দেশের দুই লাখ নারী ধর্ষিত হয়েছেন বলা হলেও আসলে সে সময় ধর্ষণের শিকার হয়েছেন পাঁচ লাখের বেশি। আর আমাদের শহীদের সংখ্যা ৩০ লাখেরও ওপরে। গবেষণায় এমনই জানা যায়।

তিনি বলেন, আমরা যখন স্বাধীন হই, তখন বলা হতো নারী ধর্ষিত হয়েছে আট থেকে ১০ লাখ। এটি আমি রেডিওতে শুনেছি। দিনে দিনে এটি দুই লাখে নেমে আসে। অথচ গবেষণায় এসেছে, নারী ধর্ষিত হয়েছে পাঁচ লাখের ওপরে, হাইকোর্টের রায়ে এ সংখ্যাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনী দিনাজপুরের সভাপতি মোজাম্মেল হক, সাধারণ সম্পাদক ছায়েদ আলী, গণহত্যা-নির্যাতন ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষণা কেন্দ্রের কোর্স পরিচালক অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান প্রমুখ।

সময় জার্নাল

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ