বিএসএমএমইউয়ে সর্বাধুনিক ক্যাথল্যাব উদ্বোধন

প্রকাশিতঃ ২:২২ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ১২ ডিসেম্বর ১৯

সময়জার্নাল রিপোর্ট :

হৃদরোগীদের চিকিৎসায় যুক্ত হলো সর্বাধুনিক ক্যাথল্যাব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের ২য় তলায় সর্বাধুনিক ক্যাথল্যাব-১ এর উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আলী আহসান, অধ্যাপক ও গ্রন্থাগারিক কবি ডা. মোঃ হারিসুল হক, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সফি উদ্দিন, অধ্যাপক ডা. এস এম মোস্তফা জামান, অধ্যাপক ডা. এম এ মুকিত, সহকারী অধ্যাপক ডা. আরিফুল ইসলাম জোয়ারদার টিট, কনসালটেন্ট শেখ ফয়েজ আহমেদ প্রমুখসহ সম্মানিত শিক্ষক, চিকিৎসক, রেসিডেন্ট শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, নার্স, টেকনিশিয়ান ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সর্বাধুনিক এই ক্যাথল্যাবটি চালু করার ফলে যতটা সম্ভব রেডিয়েশনের মাত্রা কম ব্যবহার করেই রোগীদের এনজিওগ্রাম ও হার্টে রিং পড়ানো সম্ভব হবে। সাথে সাথে উন্নতমানের সুস্পষ্ট ইমেজও পাওয়া যাবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নতির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। রোগীদের কল্যাণের কথা ভেবেই কার্ডিওলজি বিভাগে কার্ডিয়াক ক্যাথল্যাব-১ চালু করা হলো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা শিক্ষা, চিকিৎসাসেবা ও গবেষণা কার্যক্রম আরো এগিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আলী আহসান বলেন, সর্বাধুনিক ক্যাথল্যাবটি চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের উন্নত চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম আরো সমৃদ্ধ হলো এবং এর মাধ্যমে রোগীদের জন্য সেবার পরিধি আরো বৃদ্ধি পাবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ