বিরাট-রোহিত দ্বন্দ্বের আগুনে ঘি ঢাললেন আনুশকা!

প্রকাশিতঃ ৯:০০ পূর্বাহ্ণ, শনি, ২৭ জুলাই ১৯

বিনোদন ডেস্ক: ২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে বিরাট কোহলির সঙ্গে রোহিত শর্মার অন্তর্দ্বন্দ্ব নিয়ে চলছে নানা জল্পনা। তাতে নয়া মাত্রা যোগ করেছেন ভারতের সহ-অধিনায়ক। প্রথমে বিরাট কোহলি, পরে আনুশকাকে ইনস্টাগ্রামে আনফলো করে দেন রোহিত। মুম্বাই মিররের দাবি, রোহিত-বিরাটের দ্বন্দ্ব অনেক আগের। এর মধ্যে আনুশকা শর্মা এক ধাঁধায় ভরা পোস্ট করলেন। তাতে সেই ফাঁটল আরও বাড়ল বলেই মত সংশ্লিষ্ট মহলের। খবর এই সময় ও জি নিউজের।

মনে করা হচ্ছে স্বামী বিরাট কোহলির পক্ষ নিয়ে পোস্টে আনুশকা রোহিত শর্মাকে টার্গেট করেছেন। এর মধ্যদিয়ে শুক্রবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন আনুশকা। তিনি নিজের ইন্সটাগ্রামে লিখেছেন, ‘যারা বুদ্ধিমান তারা চুপ থাকতেই পছন্দ করে। সত্য এবং মিথ্যা যাচাই করে ঘৃণার চাইতে নীরবতাই পছন্দ করে। এবার মনে হচ্ছে সত্যিই সমস্যাটা গুরুতর।’ এই ধাঁধার কী অর্থ তা এখনও স্পষ্ট নয়। কিন্তু এর লক্ষ্য যে রোহিতই তা নিয়ে মোটামুটি নিশ্চিত ক্রিকেট মহল।

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ভারতের বিদায়ের পরই বিরাট ও রোহিতের মধ্যে ঠাণ্ডাযুদ্ধের খবর আসে। শোনা যায়, পছন্দের ক্রিকেটারদের সুযোগ করে দিচ্ছেন বিরাট। আর সেটায় মত নেই রোহিত শর্মার। তবে এনিয়ে এখন পর্যন্ত দুজনের কেউই মুখ খোলেননি। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যেতে চেয়ে বিরাট জল্পনার আগুনে ঘি ঢেলেছেন বলে মত অনেকের। ক্রিকেটবোদ্ধারা মনে করছেন, প্রথমে ঠিক ছিল, বিরাট কোহলিকে বিশ্রাম দিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পাঠানো হবে রোহিত শর্মার নেতৃত্বে দল।

কিন্তু ছুটি না চেয়ে খেলার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন কোহলি। এরপর জল্পনা আরও বাড়ে যখন ইনস্টাগ্রামে হঠাৎ করে বিরাট ও আনুশকাকে অনুসরণ করা থেকে বিরত হন রোহিত শর্মা। সহ-অধিনায়কের এমন সিদ্ধান্তে প্রশ্ন ওঠে।

সূত্রের খবর, এবছর বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের পরই বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন রোহিত-বিরাট। তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় নাকি ড্রেসিংরুমেও। যার জেরে সতীর্থদের ছেড়ে একাই দেশে ফিরে আসেন তিনি। মাঠে একে অপরের সঙ্গে কথা বলেননি তাদের স্ত্রীরাও।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ