বেহাল অবস্থায় পতিত ঢাকা কলেজের শহীদ মিনার

প্রকাশিতঃ ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ, বৃহঃ, ১৯ সেপ্টেম্বর ১৯

মুজাহিদ, ঢাকা কলেজ প্রতিনিধিঃ ২১শে ফেব্রুয়ারি ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনার্থে শহীদ মিনার নির্মান করা হয়। আর যা প্রতিটি ক্যাম্পাসেই বাধ্যতামূলক। তেমনি তাদের স্মরণে ঐতিহাসিক ঢাকা কলেজে নির্মিত হয়েছিল শহীদ মিনার। যা পরিচর্চার অভাবের ফলে বেহাল অবস্থা দেখা দিয়েছে।

উল্লেখ্য, শহীদ মিনার হলো ভাষা শহীদদের মূর্তপ্রতীক। ১৯৫২ সালে ভাষা যাদের তাজা রক্তের বিনিময় দেশর মানুষ পেল তাদের মায়ের ভাষায় কথা বলার অধীকার। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনি রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে এদেশের বুক থেকে মুছে দিতে চেয়েছিলো হাজারো বাঙ্গালীর মুখের ভাষা প্রাণের ভাষা কেড়ে নিয়ে তাদের উর্দু ভাষাকে এদেশের রাষ্ট্র ভাষা করতে চেয়েছিলো। যা এদেশের ছাত্র জনতা রাজ পথে তাদের বুকের তাজা রক্ত ঢেলে আন্দোলনের মাধ্যমে রুখে দিয়েছিলো।

প্রসঙ্গত, সকল ক্যাম্পাসের মতই শহীদদের স্বরণে ঢাকা কলেজে শহীদ মিনার থাকলেও আজ তার বেহাল অবস্থা। যেমনি নেই সৌন্দর্য তেমনি মাঝখানে ফাটল ধরে নিচের দিকে ডেবে গিয়ে অনেকটা সামনের দিকে ঝুকে গেছে। ঢাকা কলেজের মত ঐতিহাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণে এরকম ফাটল ধরা ছোট পরিসরে শহীদ মিনার কখনো শোভা পায়না। এবং এতে করে শহীদ মিনারের সৌন্দর্য ও ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা কমে যাচ্ছে বলে মনে করেন কলেজের শিক্ষার্থীরা।

ইংরেজি বিভাগের সাইদুর রহমান বলেন, ঢাকা কলেজের মত ঐতিহাসিক কলেজে ফাটল ধরা শহীদ মিনার কখনো শোভা পায়না। আর শহীদ মিনারটিকে জায়গা পরিসরে আরো বড় আকারে নির্মাণ করার জন্য কলেজ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

তাছাড়া শহীদ মিনারে জুতা নিয়ে প্রবেশ যেন প্রতিনিয়ত মামুলি ব্যাপার হয়ে গেছে। এবং মিনারটির রক্ষনা বেক্ষনের ব্যাপারে প্রশাসনের তেমন কোন ভুমিকা নেই বল্লেই চলে।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নেহাল আহমেদ বলেন, ঢাকা কলেজের নতুন ভবনের কাজ শেষ হবার পরপরই ভবনের সামনে নতুন শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। নতুন শহীদ মিনারের পাশে ফুলবাগানের মাধ্যমে সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হবে।

এছাড়াও তিনি আরো বলেন, ঢাকা কলেজের নতুন শহীদ মিনার নির্মাণ করার মাধ্যমে এটিকে শহীদ মিনার চত্বর হিসেবে তৈরি করা হবে। জুতা নিয়ে শহীদ মিনারে প্রবেশের বিষয়টি ভালভাবে দেখবেন বলেও তিনি আশ্বাস দেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ