ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩১, স্কুল বন্ধের নির্দেশ

প্রকাশিতঃ ৫:১২ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৬ মার্চ ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের এবার ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩১। গত এক সপ্তাহের মধ্যেই ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ থেকে ৩১ গিয়ে পৌঁছাল। ভাইরাসটির লোকাল বিস্তার প্রতিরক্ষায় ভারতের দিল্লিতে সব প্রাইমারি স্কুলগুলো বন্ধ রাখার ঘোষণা করা হয়েছে।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের রাজধানী দিল্লিতে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেওয়া তথ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের এ সংখ্যা জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত দিল্লির প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। প্রাইমারি স্কুলগুলো বন্ধ করায় স্থানীয়ভাবে করোনা ভাইরাস ছড়ানো কিছুটা হলেও প্রতিরোধ করা যাবে বলে মনে করছে দেশটির সংশ্লিষ্টরা।

ভারতের শিক্ষামন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়ার বরাত দিয়ে এনডিটিবির খবরে বলা হয়, দিল্লির সকল সরকারি, বেসরকারি স্কুলগুলি অবিলম্বে বন্ধ করা হবে। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার জানানো হয়, করোনা ভাইরাস ছড়ানোর বিরুদ্ধে সতর্কতার পদক্ষেপ হিসাবে দিল্লির সমস্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ৭৯টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এতে বিশ্বে মোট ৯৪ হাজার ৯০০ জন কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এবং বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ২৭২ জন।

ডব্লিউএইচও আরও জানায়, চীনের বাইরে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৫০০ জন। চীনের বাইরে শুধু ইতালি, ইরান আর দক্ষিণ কোরিয়ায় মৃত্যু হয়েছে ২৭২ জনের। এ হিসেবে গত বছর ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৮০ হাজার ৪০০ এবং করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩০০০ হাজার জনের। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশির মত সমস্যা দেখা দেয়।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ