মনিপুরীদের ভারত থেকে স্বাধীনতা ঘোষণা!

প্রকাশিতঃ ২:৩৭ অপরাহ্ণ, বুধ, ৩০ অক্টোবর ১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারেতর মনিপুর রাজ্যের দুই বিদ্রোহী নেতা দেশটি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন। তারা দবি করছেন রাজা লেইশেম্বা সানাজাওবার পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) স্বাধীনতার ঘোষণাসহ যুক্তরাজ্যে প্রবাসী সরকার গঠনের ঘোষণা দেন তারা।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানায়, লন্ডনে বসবাসরত দুই মনিপুরী নেতা ইয়ামবিন বিরেন ও নরেংবাম সমরজিৎ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে ‘প্রবাসী মনিপুর সরকার’ গঠনের ঘোষণা দেন। এসময় বিরেন নিজেকে মনিপুর স্টেট কাউন্সিলের মুখ্যমন্ত্রী এবং সমরজিৎ নিজেকে পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলে দাবি করেন।

তবে, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে ভারতীয় হাইকমিশন থেকে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। আর মনিপুরী রাজাও মুখ খোলেননি।

গত আগস্টে যুক্তরাজ্য বিরেন ও সমরজিতের রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন অনুমোদন করেছে বলে জানানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে রাজনৈতিক আশ্রয়ের নথিপত্র দেখিয়ে তারা বলেন, যুক্তরাজ্যে আশ্রয় নিশ্চিত হওয়ায় ‘ডি জুরি গভর্নমেন্ট’ মনিপুর থেকে লন্ডনে নিয়ে আসা হয়েছে।

‘আমাদের বিশ্বাস, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সামনে স্বাধীন মনিপুর সরকার ঘোষণা ও পরিচিতি লাভের এখনই সঠিক সময়। মনিপুরের ৩০ লাখ মানুষ গুরুত্বপূর্ণ আদিবাসী বলে স্বীকৃতি চায়। ভারত সরকারের সঙ্গে আমাদের মিলে যাওয়ার প্রচেষ্টা ঘৃণা ও সহিংসতায় রূপ নিয়েছে।’

বিরেন ও সমরজিতের দাবি, ভারতের সুপ্রিম কোর্টে দেড় হাজারেরও বেশি বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মামলা বিচারাধীন।

এই দুই নেতা জানান, তারা রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে একটি আবেদন করবেন। আর মন্ত্রিসভা থেকে অনুমতিপ্রাপ্তির পর তারা জাতিসংঘে যাবেন স্বীকৃতির জন্য।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ