যশোর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ওএসডি

প্রকাশিতঃ ৫:২৭ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৯ জানুয়ারি ২০

টিআই তারেক : যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো: আবদুল আলীমকে ওএসডি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার শিক্ষা (২৮ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের উপ-সচিব ড. শ্রীকান্ত কুমার চন্দ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ আদেশ দেয়া হয়েছে। তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন খুলনা জয়বাংলা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোল্যা আমীর হোসেন।

শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা গেছে, মোহাম্মদ আবদুল আলীম ২০১৬ সালে নভেম্বর মাসে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে কেনাকাটায় অনিয়মের অভিযোগ ওঠে।

অভিযোগে জানা যায়, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দরপত্র ছাড়াই ২ কোটি ২৬ লাখ টাকার কম্পিউটার সামগ্রী কিনেছেন। কেনাকাটায় সরকারের ক্রয়বিধি উপেক্ষা করায় স্থানীয় ও রাজস্ব অডিট অধিদপ্তরের নিরীক্ষা দল আপত্তি দিয়েছেন।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের ক্যাশ বই, খরচের বিবরণী ও বিল-ভাউচার নিরীক্ষা করে দেখেছেন রাজস্ব অডিট অধিদপ্তরের নিরীক্ষা দল।

নিরীক্ষা দলের মতে, উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতি এড়িয়ে অনিয়মিতভাবে কোটেশন প্রদানের অনুরোধ সংবলিত বিজ্ঞপ্তি (আরএফকিউ) অনুসরণ করে কম্পিউটার সামগ্রী কেনা হয়েছে। এর মূল্য ২ কোটি ২৬ লাখ ৩৭ হাজার টাকা। এ ক্ষেত্রে আর্থিক ক্ষমতা (অনুন্নয়ন) সংশোধন আদেশ উপেক্ষা করা হয়েছে। আর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অস্তীত্বহীন প্রতিষ্ঠান থেকে এসব পণ্য কেনা হয়। আর যেসব প্রতিষ্ঠানের প্যাডে বিল ভাউচার জমা দেয়া হয়েছে তারা বিল বা কেনাকাটা সম্পর্কে কিছুই জানেন না।

এছাড়া নিয়ম বহির্ভুতভাবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অমান্য করে বোর্ডের বিভিন্ন শাখায় ৪৫ জন মাস্টাররোল কর্মচারী নিয়োগ দিয়েছেন। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে দুর্নীতি দমন কমিশন প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা পাওয়ায় তাকে ওএসডি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ