যেভাবে ব্যাটিং করেছে, আমি বিশ্বাস রাখতেই পারি: সাকিব

প্রকাশিতঃ ১১:৪১ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৬ সেপ্টেম্বর ১৯

ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে সমীকরণটা এখন পরিষ্কার- প্রথম ইনিংসে বাকি থাকা দুই উইকেটে যত বেশি সম্ভব রান করে নাও, পরে অল্পতে বেঁধে ফেলো আফগানদের দ্বিতীয় ইনিংস। তা হয়ে গেলে, ম্যাচের শেষ ইনিংসে লক্ষ্য তাড়া করতে পারলেই মিলবে জয়।

বলতে যতটা সহজ মনে হলো, কাজটা ঠিক ততটাই কঠিন। কেননা ম্যাচের প্রথম ইনিংসে এখনও ১৪৮ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ। হাতে রয়েছে মাত্র ২ উইকেট। তাই প্রথম ইনিংসে লিড পাওয়ার আশা ধরে রাখাই হবে বোকামি। এর চেয়ে বরং আফগানদের দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত অলআউট করার পরিকল্পনা সাজানোই বুদ্ধিমানের কাজ।

আর সে কাজটি যথাযথ করতে নিজ দলের বোলারদের কাছ থেকে জাদুকরী কিছু চান টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। একই সঙ্গে তৃতীয় দিনে নিজ দলের পরিকল্পনা কেমন হবে, সে ব্যাপারেও ধারণা দেন সাকিব।

তার ভাষ্যে, ‘আমি প্রত্যাশা করবো যেন এই দুই উইকেট অন্তত একটি সেশন ব্যাটিং করে। যদি সেটা করতে পারে তাহলে রান অনেক কমে আসবে। ৭০-৮০ পর্যন্তও যদি আমরা আনতে পারি সেটি আমাদের জন্য অনেক বড় অ্যাডভানটেজ হবে। যদিও অনেক কঠিন একটি চ্যালেঞ্জ হবে, তবে যেভাবে ব্যাটিং করেছে আমি বিশ্বাস রাখতেই পারি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এরপরে অবশ্যই খুব ভালো বোলিং করতে হবে। যেটা বিশ্ব ক্রিকেটে অনেকেই অনেক সময় করেছে যে এমনভাবে পিছিয়ে থাকার পরেও ভালোভাবে কামব্যাক করেছে। এমন সুযোগ যদি আমাদের থাকে এবং আমাদের বোলাররা ম্যাজিকাল কিছু করে দেখাতে পারে স্পেশালি, এরপরে আমাদের ব্যাটসম্যানদের ওপরেও নির্ভর করতে হবে।

বলা বাহুল্য, দুই দলেই স্পিনারের সংখ্যা সমান চারজন করে। বাংলাদেশ দলে দুই বাঁহাতি অর্থোডক্স স্পিনার এবং দুই ডানহাতি অফস্পিনার। আফগানিস্তান দলে রয়েছেন দুই ডানহাতি লেগস্পিনার, এক ডানহাতি স্পিনার ও এক বাঁহাতি চায়নাম্যান। দুই দলের স্পিন ডিপার্টমেন্টে এই যে বৈচিত্র্যের পার্থক্য, এটিই আফগানদের বেশি কার্যকর করে বলে জানান সাকিব।

তিনি বলেন, ‘আমাদের ফিঙ্গার স্পিনার আর ওদের রিস্ট স্পিনার- এটাই পার্থক্য। এছাড়া আর কোনো পার্থক্য আমি দেখি না। নবী (মোহাম্মদ নবি) ভাই বোলিং করেছে, দুইটা উইকেটও পেয়েছেন। আমাদেরও কিন্তু ফিঙ্গার স্পিনাররাই দশ উইকেট নিয়েছে। কিন্তু ওদের রিস্ট স্পিনাররাই বেশি কার্যকর ছিলো। যেহেতু আমাদের রিস্ট স্পিনার নেই, এমন উইকেটে তখন কাজটা কঠিন হয়ে যায়। যেহেতু আমরা এমন ফ্ল্যাট উইকেট আশা করিনি, তাই আমাদের জন্য পরিস্থিতিটা বেশ কঠিন।’

সাকিব যোগ করেন, ‘দেখুন, উইকেটটা ফিঙ্গার স্পিনারদের জন্য খুব একটা বদলেছে বলে আমার মনে হয় না। আর রিস্ট স্পিনাররা সবসময়ই সুবিধা পাবে। যেহেতু তাদের বৈচিত্র্য আছে আছে রিস্ট স্পিনে, তাই ওদের সুবিধা একটা থাকবেই।’

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ