রাজধানীতে হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল

প্রকাশিতঃ ৭:৫৯ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৪ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: ঢাকার গুলশানস্থ গার্ডেনিয়া গ্রান্ড হলে (বাড়ি ৮, সড়ক ৫১, গুলশান ২) চলছে হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল। দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত এই উৎসব চলবে শনিবার (২৬ অক্টোর) পর্যন্ত।

চারিদন ব্যাপী উৎসবের দ্বিতীয় দিন গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গনটি বিদেশী ক্রেতা-দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর ছিল।

আজকের দিনটি শুধু বাংলাদেশে অবস্থিত বিভিন্ন বিদেশী দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত ও কর্মকর্তারাসহ বিদেশী অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। দিনটিকে ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ ডে হিসেবে অবহিত করা হয়েছে। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী।

এসএমই ফাউন্ডেশন ও অ্যাসোসিয়েশন অব ফ্যাশন ডিজাইনার্স অব বাংলাদেশ (এএফডিবি) যৌথভাবে দ্বিতীয়বারের মতো এই ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করে।

হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল-২০১৯ এ মোট ৪৫টি স্টলে ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন ধরনের তাঁত ও কারুপণ্য প্রদর্শিত হয়। নকশিকাঁথা, বেনারসি শাড়ি, টাঙ্গাইল শাড়ি, জামদানি শাড়ি, সিরাজগঞ্জ শাড়ি-লুঙ্গী-গামছা, মণিপুরী কাপড়, রাঙ্গামাটির চাকমাসহ অন্যদের কাপড়, খাদি, রাজশাহী সিল্ক, পাটজাত পণ্য, শতরঞ্জি পণ্য, বাঁশ-বেত পণ্য, পটচিত্র প্রদর্শন ও বিক্রয় করা হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন এস এম ই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সফিকুল ইসলাম। এ সময় ফেস্টিভ্যালের নানা দিক তুলে ধরেন এএফডিবি’র সভাপতি মানতাশা আহমেদ।

উল্লেখ্য, আগামী ২৬ অক্টোবর শনিবার বিকাল তিনটায় হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল’র সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এমপি।

এস এম ই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন কে এম হাবিব উল্লাহ’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিল্প সচিব মোঃ আবদুল হালিম, সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল। এস এম ই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সফিকুল ইসলাম।

হেরিটেজ হ্যান্ডলুম ফেস্টিভ্যাল’র সমাপনী অনুষ্ঠানে মেলায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদপত্র বিতরণ করা হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ