রাজধানীর যেসব এলাকা লকডাউন করা হয়েছে

প্রকাশিতঃ ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ, বুধ, ৮ এপ্রিল ২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে শহর থেকে গ্রামে। রাজধানীতে এর প্রার্দুভাব সবচেয়ে বেশি। এ কারণে রাজধানীর বেশকিছু এলাকা লকডাউন করা হয়েছে। এসব এলাকায় ঢোকা ও বের হওয়া বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বসানো হয়েছে পুলিশি পাহারা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মাসুদুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যেসব এলাকায় করোনা রোগী পাওয়া যাচ্ছে, সেসব এলাকা লকডাউন করা হচ্ছে।

এর মধ্যে ঢাকায় মিরপুরের টোলারবাগে রোগী পাওয়ার পর ওই এলাকা আগেই লকডাউন করা হয়। এরপর একে একে পুরান ঢাকায় খাজে দেওয়ান লেনের ২০০ ভবন, মোহাম্মদপুর এবং আদাবরের ৬টি এলাকা, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটের সামনের এলাকা, তাজমহল রোড মিনার মসজিদ এলাকা, রাজিয়া সুলতানা রোড, বাবর রোডের একাংশ, বছিলা ও আদাবর এলাকার কয়েকটি বাড়ি ও রাস্তা এবং বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় একটি রাস্তা লকডাউন করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এছাড়া মহাখালীর আরজত পাড়ার একটি ভবন, বসুন্ধরা এলাকার অ্যাপোলো হাসপাতালসংলগ্ন এলাকা, বসুন্ধরা ডি ব্লকের রোড-৫, বুয়েট এলাকার একাংশ, ইস্কাটনের দিলু রোডের একাংশ, উত্তরা ১৪ নম্বর সেক্টরের একটি সড়ক এলাকা, কাজীপাড়ার একটি অংশ, সেন্ট্রাল রোডের কিছু অংশ, সোয়ারীঘাটের কিছু অংশ, মিরপুর-১০-এর ৭ নম্বর রোড, পল্টনের কিছু অংশ, আশকোনার কিছু অংশ, নয়াটোলার একাংশ, সেনপাড়ার একটি অংশ, মীর হাজিরবাগের একাংশ, নন্দীপাড়ার ব্রিজের পাশের এলাকা, মিরপুর সেকশন ১১-এর একটি সড়ক, লালবাগের খাজে দেওয়ান রোডের একটি অংশ, ধানমন্ডি-৬-এর একটি অংশ, উত্তর টোলারবাগ, মিরপুর-১৩ ডেসকো কোয়ার্টার, দক্ষিণ যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী, পশ্চিম মানিকনগর, নারিন্দার কিছু এলাকা, গ্রিন লাইফ হাসপাতাল এলাকা, ইসলামপুরের একাংশ লকডাউন করা হয়।

এসব এলাকা পুলিশি পাহারায় থাকবে। দিন-রাত কাউকে চলাচল করতে দেয়া হবে না। এলাকায় সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ রাখা হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ