শিশু নিয়ে পালানো নারীকে পিটিয়ে পুলিশে দিলো জনতা

প্রকাশিতঃ ৬:২৬ অপরাহ্ণ, শনি, ২০ জুলাই ১৯

নিউজ ডেস্ক: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে শিশু নিয়ে পালানোর সময় রেহেনা বেগম (৪৫) নামের এক নারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

শনিবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার সলিমপুরের পুরাতন দাইয়াবাড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশের ধারণা, ওই নারী রোহিঙ্গা। তার স্বামীর নাম মোহাম্মদ হারুন ও বাবার নাম ইউনুছ মিয়া।

স্থানীয়রা জানায়, আরফাতুল ইসলাম সিফাত নামে ৫ বছরের এক শিশু ঘরে বইরে খেলার সময় ওই নারী তাকে কোলে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় দোকানদার বিষয়টি দেখে ফেলেন। এ সময় স্থানীয়রা তাকে ধাওয়া করলে শিশুটিকে ফেলে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন তিনি। পরে লোকজন তাকে আটক করে পিটুনি দিয়ে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা আরও জানায়, সিফাত নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার জাহাজমারা গ্রামের সজল ইসলাম ও পারুল আক্তারের ছেলে। তারা দীর্ঘদিন সলিমপুরের বাংলাবাজারের পুরাতন দাইয়া বাড়ির আলমগীরের ভাড়া বাসায় বাস করছেন।

ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রফিক আহমেদ মজুমদার বলেন, শিশু নিয়ে পালানোর সময় এক নারীকে এলাকাবাসী আটক করে। ওই নারী তার পুরো ঠিকানা বলছে না। ধারনা করা হচ্ছে তিনি রোহিঙ্গা। শিশুটিকে পরিবারের কাছে ও আটক নারীকে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ