সঞ্জু-খাদিজা থেকেই হয়েছেন অনন্ত-বর্ষা

প্রকাশিতঃ ৭:০৭ অপরাহ্ণ, সোম, ৫ আগস্ট ১৯

সবাই তাদের চেনেন অনন্ত জলিল-বর্ষা নামে। তবে দর্শক প্রিয় এই জুটি জানালেন, তাদের পূর্ব নাম ছিল সঞ্জু ও খাদিজা।

অনন্ত জলিল বলেন, ‘‘ছোটবেলায় খুব দুষ্টু ছিলাম। তখন আমার গৃহশিক্ষক আব্দুল জলিলের নামের অনুপ্রেরণায় বাবা আমার নাম রেখে দেন ‘আব্দুল জলিল’। পরবর্তী সময়ে আমার বড় ভাই আমার ডাক নাম রাখেন ‘অনন্ত’। এই নামটি আমার খুব পছন্দ হয়। যে কারণে আমি এখন অনন্ত জলিল।’’

অন্যদিকে বর্ষা জানান, ছোটবেলায় তার নাম ছিল ‘খাদিজা’। তিনি বলেন, ‘বড় হওয়ার পর ঘটনাক্রমে তার নাম বর্ষা রাখা হয়।’

কী সেই ঘটনা- তা বর্ষা জানিয়েছেন মাছরাঙা টেলিভিশনের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘রাঙা সকাল’ এর বিশেষ ঈদ আয়োজনে।

এছাড়াও তারা জানান, খুব শিগগিরই ‘দিন: দ্য ডে’ ছবি নিয়ে পাঁচ বছর পর বড় পর্দায় আসছেন তারা। তারা জানান, ইরানে ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার ভেতরেও কাজ করেছেন এ ছবির জন্য। সংখ্যাতত্ত্ব কিংবা জ্যোতিষশাস্ত্রে বিশ্বাস না করলেও ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১১ অনন্ত-বর্ষার বিয়ে হয় এবং তাদের দুই সন্তান আরিজ ও আবরারের জন্ম হয় যথাক্রমে ২৩ অক্টোবর ও ২৩ নভেম্বর।

এমন সব মজার তথ্য দিয়েছেন অনুষ্ঠানটিতে। রুম্মান রশীদ খান ও সাকীর উপস্থাপনায় এটি প্রযোজনা করেছেন রকিবুল আলম ও জোবায়ের ইকবাল। দুই ঘণ্টাব্যাপী এই বিশেষ পর্বটি মাছরাঙা টিভিতে ঈদের ২য় দিন (আসছে ১৩ আগস্ট) সকাল ৭টায় প্রচার হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ