সবজির বাজার চড়া, কমেছে মুরগির দাম

প্রকাশিতঃ ২:৩৩ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৩০ আগস্ট ১৯

সপ্তাহের ব্যবধানে শীতের আগাম সবজি শিমের দাম কমে প্রায় অর্ধেকে চলে আসলেও বরবটি, করলা, বেগুনসহ বেশিরভাগ সবজির দাম বেড়েছে। তবে দাম কমেছে বয়লার মুরগির।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, রামপুরা, মালিবাগ হাজীপাড়া, খিলগাঁও এবং শান্তিনগরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শীতের আগাম সবজি শিমের দাম সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে কমেছে ৬০ টাকা। এমন দাম কমলেও এ সবজিটি এখনো নিম্ন আয়ের মানুষের নাগালের বাইরে রয়েছে।

কারণ বাজার ও মানভেদে শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০- ১৪০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৮০- ২০০ টাকা কেজি।

শিমের এমন দামের বিষয়ে ব্যবসায়ীরা বলছেন, যে কোনো সবজি বাজারে নতুন আসলে দাম একটু বাড়তিই থাকে। শীত আসতে এখনো বেশ বাকি আছে। তবে শীতের আগাম সবজি হিসেবে শিম ইতিমধ্যে বাজারে চলে এসেছে। আগাম বাজারে আসায় এ সবজিটির দাম চড়া। মাস দুয়েক পর শিমের দামে অনেক কমে যাবে।

হাজিপাড়া বৌ-বাজারে ফাতেমা বলেন, গত সপ্তাহে এক পোয়া (২৫০ গ্রাম) শিম বিক্রি করেছি ৫০ টাকায়। আর আজ বিক্রি করছি ৩০ টাকায়। সামনে শিমের দাম আরও কমবে। মাস দুয়েক পর দেখবেন শিম ১০-২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পাকা টমেটোর কেজি আগের সপ্তাহের মতো বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৪০ টাকায়। গাজরের দামও অপরিবর্তিত রয়েছে। গাজর বিক্রি হচ্ছে ৮০-১০০ টাকা কেজি।

তবে সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে করলা, বরবটি, বেগুনের। করলার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০- ৯০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ৫০- ৬০ টাকা কেজি।

গত সপ্তাহে ৬০- ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া বরবটির দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৮০- ৯০ টাকায়। বেগুনের দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৬০- ৭০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০- ৫০ টাকা।

চড়া দামে বিক্রি হওয়া সবজির তালিকায় রয়েছে- পটল, ঝিঙা, ধুন্দল, চিচিংগা, কাকরোল, ঢেঁড়স, লাউ। চিচিংগা, ঝিঙা, ধুনদল বিক্রি হচ্ছে ৪০- ৫০ টাকা কেজি। যা গত সপ্তাহে বিক্রি হয় ৬০- ৭০ টাকা কেজি। অর্থাৎ দাম চড়া হলেও সপ্তাহের ব্যবধানে এ সবজিগুলোর দাম কমেছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বাড়ার তালিকায় থাকা পটল বিক্রি হচ্ছে ৫০- ৬০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০- ৫০ টাকা। কাকরোল বিক্রি হচ্ছে ৫০- ৬০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০- ৫০ টাকা কেজি। লাউ বিক্রি হচ্ছে ৬০- ৭০ টাকা পিস।

তবে বাজারে কিছুটা কম দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁপে ও মিষ্টি কুমড়া। পেঁপের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ২০- ২৫ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০- ৩৫ টাকা। মিষ্টি কুমড়ার ফালি বিক্রি হচ্ছে ১৫- ২০ টাকা।

এদিকে ২৫০ গ্রাম কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২০- ২৫ টাকা। দেশি পেঁয়াজের বিক্রি হচ্ছে ৪৫- ৫০ টাকা। আর আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩৫- ৪০ টাকা কেজি।

ডিমের ডজন গত সপ্তাহের মতো বিক্রি হচ্ছে ১০০-১১০ টাকা। আর সাদা বয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০- ১২৫ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৪০- ১৫০ টাকা। তবে লাল লেয়ার মুরগি আগের মত ২০০- ২১০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

রামপুরায় বাসিন্দা মামুন মিয়া বলেন, বাজারে সব সবজির দাম বেশি। শুধু পেঁপে আর মিষ্টি কুমড়ার দাম একটু কম। এমন চড়া বাজারে পছন্দ মতো সবজি কিনে খাওয়া কষ্টকর। তবে বয়লার মুরগির দাম কমেছে, এটা আমাদের জন্য ভালো সংবাদ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ