সরকারের ক্যাসিনো অভিযান বড় অপকর্মের পূর্বাভাস: রিজভী

প্রকাশিতঃ ৫:১৩ অপরাহ্ণ, বুধ, ২ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আশঙ্কা প্রকাশ করে দাবি করেন, ক্যাসিনো অভিযান বড় কোন অপকর্মের পূর্বাভাস।

বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, অভিযান বড় কোন অপকর্মের পূর্বাভাস। এই অভিযান প্রতিহিংসা, ঈর্ষা, চাঁদাবাজী ও স্বজনপোষণের রাজনীতির জটিল সমীকরণের বহিঃপ্রকাশ বলে অনেকে মনে করেন।

রিজভী বলেন, একটি পত্রিকা লিখেছে, গোয়েন্দা সংস্থার কাছে জিজ্ঞাসাবাদে জি কে শামীম বলেছেন যে, আওয়ামী লীগের বর্তমান ও সাবেক ৭ মন্ত্রী এবং ২৩ এমপিকে তিনি নিয়মিত টাকা দিতেন। তারা ছিল যুবলীগ নেতা শামীমের ‘বিজনেস পার্টনার’। আমাদের প্রশ্ন তারা কারা? নাম বলেন না কেন?

আওয়ামী লীগ এর শুদ্ধি অভিযান নিয়ে রিজভী বলেন, গত ১৩ বছরে আওয়ামী লীগের মহাদুর্নীতির ঝুড়ি থেকে বাতাসা ছাড়া যখন বড় বড় চমচম বের হতে শুরু করেছে, তখনই সেটির দায় চাপানোর জন্য তারা লন্ডনের রাস্তা খুঁজে বেড়াচ্ছে।

খোদ রাজধানীতে গত ১৩ বছর যাবত ডজন ডজন ক্যাসিনো গড়েছে যুবলীগ ও তাদের গডফাদাররা। এই সরকারের আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে দুর্বৃত্তরা টাকার কুমির হয়েছে। আওয়ামী লীগ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের চাঁদাবাজী ও দুর্নীতির বৃত্তান্ত শুনে দেশবাসী অত্যন্ত বিস্ময়ে হতবাক হয়েছে। দুর্নীতির ইতিহাসে এ এক স্বতন্ত্র ও ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সরকার কথিত অভিযানের নামে মাঠে নেমে এখন না পারছে উঠে আসতে না পারছে রাঘব বোয়াল ধরতে। তাই এখন বিএনপি ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

আর এখন তাদের সুর বদলে গেছে। ক্ষমতাসীনদের ঘরে ঘরে এখন টাকা গোনার মেশিন সিন্দুক ভল্ট ভরা লুটপাটের অর্থ। বিদেশে লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা পাচার করে দেশকে ফোকলা করে দিয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ