সিটি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আজ

প্রকাশিতঃ ১১:১২ পূর্বাহ্ণ, বৃহঃ, ৯ জানুয়ারি ২০

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আজ বৃহস্পতিবার। নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য বিকেল ৫টা পর্যন্ত সুযোগ পাবেন প্রার্থীরা।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, মেয়র পদে বড় রাজনৈতিক দলগুলোর একক প্রার্থী থাকলেও কাউন্সিলর পদে বিভিন্ন ওয়ার্ডে এক দলের একাধিক প্রার্থী রয়েছেন। এই নির্বাচনে কাউন্সিলরদের দলীয় প্রতীক বরাদ্দের সুযোগ নেই। তবে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পক্ষ থেকে দলগতভাবে সমর্থন জানানো হয়েছে কাউন্সিলর প্রার্থীদের।

দলের সমর্থনের বাইরে থাকা কাউন্সিলর প্রার্থীদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের জন্য ইতোমধ্যে সংশ্নিষ্ট দলের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় পার হওয়ার পরে চূড়ান্ত প্রার্থীদের মধ্যে আগামীকাল প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়েই এই নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচারের সুযোগ পাবেন প্রার্থীরা।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, এবার সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীরা ২০ দিন প্রচারের সুযোগ পাচ্ছেন। আচরণবিধি মেনে প্রচার চালাতে ইতোমধ্যে প্রার্থীদের অনুরোধ জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এ ছাড়া আচরণ বিধিমালা দেখভালে মাঠে রয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরাও।

৩১ ডিসেম্বর ঢাকার দুই সিটিতে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা। দুই সিটিতে মেয়র পদে ১৪ জন এবং ১৭২ পদের বিপরীতে সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী হন এক হাজার ২৫ জন। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরে মেয়র প্রার্থী সাতজন, কাউন্সিলর ৩৭৪ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর ৮৯ জনসহ মোট ৪৭০ জন এবং দক্ষিণে মেয়র পদে সাতজন, সাধারণ কাউন্সিলর ৪৬০ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর ১০২ জনসহ মোট ৫৬৯ জন রয়েছেন।

দুই রিটার্নিং কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২ জানুয়ারি রিটার্নিং কর্মকর্তারা প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই করে একজন মেয়র প্রার্থী ও ৪৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করেন। এর বিরুদ্ধে আপিল করে ঢাকা উত্তরে সাতজন ও দক্ষিণে ১৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এর বাইরেও উচ্চ আদালতে মামলা করে দু-একজন প্রার্থিতা ফিরে পাচ্ছেন বলেও নির্বাচন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত মেয়র পদের প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- ঢাকা উত্তর সিটিতে আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম, বিএনপির তাবিথ আউয়াল, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল-পিডিপির শাহীন খান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ মো. মাসউদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) মো. আনিসুর রহমান এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির আহাম্মদ সাজেদুল হক। ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে মেয়র পদে রয়েছেন আওয়ামী লীগের ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, বিএনপির ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, জাতীয় পার্টির হাজী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন মিলন, গণফ্রন্টের আব্দুস সালাম সুজন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির বাহারানে সুলতান বাহার, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আব্দুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আখতারুজ্জামান ওরফে আয়াতুলল্গাহ। দুই সিটিতে দলীয় প্রার্থীর বাইরে মেয়র পদে কোনো স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেননি।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ