সুনামগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিতঃ ৭:০৯ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২৪ ডিসেম্বর ১৯

সেলিম আহমদ তালুকদার: সুনামগঞ্জের ফসলরক্ষা বাঁধের নীতিমালা অনুযায়ী গণশুনানির মাধ্যমে কাজ শুরু করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) বেলা ১১ টায় শহরের আলতাফ স্কয়ারে ট্রাফিক পয়েন্টে হাওর বাঁচাও সুনাগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সালেহীন শুভ’র সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, হাওর বাঁচাও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সুখেন্দু সেন, সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক নির্মল ভট্টাচার্য্য, অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে কুদরত পাশা, সদর উপজেলা কমিটির সদস্য সচিব শহীদনূর আহমেদ, মোল্লাপাড়া ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন, সদস্য আফরোজ রায়হান, গৌরারং ইউনিয়ন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক জুয়েল মিয়া প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, এবার হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধে অনিয়ম-দুর্নীতি হলে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। সরকার প্রতিবছর হাওরের ফসলের সুরক্ষায় ফসলরক্ষা বাঁধ নির্মাণের জন্য কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়। এবার প্রায় ৭০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট এলাকায় গণশুনানির মাধ্যমে পিআইসি কমিটি গঠন করে কাজ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত তা দৃশ্যমান হচ্ছে না।

বিগত বছরগুলোতে নির্মিত বাঁধ অক্ষত থাকলেও সেখানেই নতুন করে লাখ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে। সরকারের টাকা লুটপাট করতে কোনো কারণ ছাড়াই সংশ্লিষ্ট হাওরগুলোতে বিগত বছরের চেয়ে তিনগুন পিআইসি গঠন করা হচ্ছে। নীতিমালা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট হাওরের কৃষকদের প্রাধান্য দেয়ার কথা থাকলেও এসব পিআইসিতে দলীয় লোকদের অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। আর এর নেপথ্যে রয়েছেন সংশ্লিষ্ট হাওরের এমপিও ও জনপ্রতিনিধিরা।

সময় জার্নাল-সুনামগঞ্জ

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ