হুন্ডির মাধ্যমে লেনদেন করতেন পাপিয়া

প্রকাশিতঃ ৭:০৮ অপরাহ্ণ, শুক্র, ১৩ মার্চ ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : বহুল আলোচিত যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নুর পাপিয়া-সুমন চৌধুরী দম্পতি বিদেশে বেশির ভাগ অর্থপাচার করতেন হুন্ডির মাধ্যমে। তারা ব্যাংকের মাধ্যমে খুবই সামান্য পরিমাণ টাকা পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছে সিআইডি।

পাপিয়া দম্পতির অর্থপাচার মামলার বিষয়টি অনুসন্ধান করছে ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)। অনুসন্ধান করতে গিয়ে সিআইডি অর্থপাচারের বিষয়ে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছে। যা যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে।

এ ব্যাপারে সিআইডির ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, পাপিয়া দম্পতির অর্থপাচার মামলার বিষয়ে অনুসন্ধান চলমান রয়েছে। নিবিড়ভাবে তদন্ত কাজ চলছে। বেশকিছু আলামত হাতে এসেছে। তাতে এখন পর্যন্ত বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি আমরা। সেগুলো যাচাই-বাছাই চলছে।

ডিআইজি আরও বলেন, এখন পর্যন্ত পাপিয়ার সঙ্গে যাদের নাম এসেছে তাতে তার স্বামী সুমনের সম্পৃক্ততা রয়েছে। আরও কারা রয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত শেষে বলা যাবে।

উল্লেখ্য, গত ২২ ফেব্রুয়ারি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাল মুদ্রা, ইয়াবা ও নগদ দুই লাখ টাকাসহ পাপিয়া, তার স্বামী সুমন চৌধুরী, সহযোগী সাব্বির ও শেখ তায়্যিবাকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

এরপর তাদের নিয়ে অভিযান চালিয়ে রাজধানীর দুটি ফ্লাট থেকে নগদ ৫৮ লাখ টাকা, বৈদেশিক মুদ্রা, ৭ রাউন্ড গুলিসহ বিদেশি পিস্তল ও মদ উদ্ধার করে।

পাপিয়াদের নামে বিমানবন্দর থানায় একটি ও শেরেবাংলা নগর থানায় দুটি মামলা করে। তিন মামলায় ১৫ দিনের রিমান্ডে পাপিয়াসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি পায় র‌্যাব। এ কারণে তারা এখন র‌্যাব-১ এর হেফাজতে রয়েছে। এর আগে, ১৫ দিনের রিমান্ডে নিয়ে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ