কার্যক্রম বন্ধ
১৩ দফা দাবিতে হাবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনে তালা

প্রকাশিতঃ ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, সোম, ২৭ জানুয়ারি ২০

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি: বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) প্রশাসিক ভবনে তালা এবং নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ অনুষ্ঠানের মঞ্চ ভাঙচুর করেছে ছাত্রলীগের দু’টি গ্রুপের নেতারা।

সোমবার (২৭ জানুয়ারী) সকাল থেকে প্রশাসনিক ভবনে তালা দেওয়া হয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, অনেকদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আবাসন, ওয়াইফাই সমস্যা, লাইব্রেয়ান পরিবর্তন, বাস সংঙ্কট নিরসনসহ ১৩ দফা দাবী নিয়ে সমাধানে দাবী জানাই।

কিন্তু বার বার আসস্ত করলেও তা সমাধান করছে না। সেজন্য আজ প্রশাসনিক ভবনে তালা দেওয়া হয়েছে। আমরা চাই আমাদের যৌক্তিক দাবীগুলোর সমাধান হক। আমরা আমাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব।

বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্যান্য শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলে জানা যায়, ওরিয়েনটেশন বন্ধ ও প্রশাসনিক ভবনে তালা দেওয়ার মূল বিষয় বিভিন্ন সমস্যা না মুল বিষয় হলো বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী নিয়োগ দেওয়া।

গত রবিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের নোটিশে কর্মকর্তা, কর্মচারী নিয়োগের একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সেখানে প্রার্থীর তুলনায় খুবই অল্পসংখ্যক কর্মকর্তা, কর্মচারী নিয়োগ দেওয়ায় এ আন্দোলনের মূল কারণ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. ফজলুল হক বলেন, ‘গত কয়েক দিন থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতি ভালো না। আজকে (সোমবার) শিক্ষার্থীরা আমাদের প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়েছে। আমাদের প্রশাসনিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। আমরা এসব বাধার মুখে ওরিয়েনটেশন বাতিল ঘোষণা করেছি। তবে যৌথভাবে ওরিয়েনটেশন না হলেও বিভাগ অনুযায়ী ওরিয়েনটেশন হবে।

তিনি আরো জানান, ‘শিক্ষার্থীরা যে দাবি জানিয়েছে তাদের যেগুলো যৌক্তিক দাবি এবং অল্প সময়ে সমাধান করা যাবে সেগুলো সমাধান করা হবে,।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ