৩৭ পরিবারের ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিল ‘শিশু কিশোর মেলা পাঠাগার’

প্রকাশিতঃ ১১:৪৯ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৩ এপ্রিল ২০

রায়হান উদ্দিন তন্ময় : করোনাভাইরাসে দেশের খেঁটে খাওয়া মানুষগুলো আজ কর্মহীন। সরকারের পাশাপাশি সামাজিক-সাংস্কৃতিক, ক্রিয়াশীল সংগঠনগুলো ও ব্যাক্তি উদ্যোগেও নিজ নিজ এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছাতে কাজ করে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে ৩৭টি পরিবারের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘শিশু কিশোর মেলা পাঠাগার’।

শুক্রবার (৩ এপ্রিল) সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবীরা বনলতা সেন আবাসিক এলাকা, শেরে বাংলা নগর, পশ্চিম আগারগাঁয়ে নিম্ন আয়ের পরিবারগুলোর মাঝে এক সপ্তাহের সমপরিমাণ খাবার পৌঁছে দেয়।

এর আগে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতি পাঠাগারের সহায়তা নিয়ে সাবান, স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করে ‘শিশু কিশোর মেলা পাঠাগার’ এবং ঘনবসতি এ এলাকায় সচেতনতামূলক ব্যানারও লাগানো হয়।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘শিশু কিশোর মেলা পাঠাগার’র উপদেষ্টামন্ডলী, স্বেচ্ছাসেবী ও শুভাকাঙ্খীদের সহযোগিতায় নিম্ন আয়ের প্রত্যেক পরিবারকে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তেল, ১ কেজি ডাল ও ১ কেজি পেঁয়াজ এর একটি প্যাকেজ দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে সংগঠনটির উপদেষ্টামন্ডলী সদস্য জবির সাবেক শিক্ষার্থী গোলাম রাব্বী সময় জার্নালকে বলেন, আমাদেরকে যারা অর্থ দিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা। পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে দরিদ্র মানুষের ঘরে খাবার পৌঁছে দেওয়ার ইচ্ছার কথাও প্রকাশ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘শিশু কিশোর মেলা পাঠাগার’ মূলত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। আমাদের এ পাঠগারে নিম্ন আয়ের পরিবারের সন্তানরা সুস্থ সংস্কৃতি চর্চা করার সুযোগ পেয়ে থাকে। এখানে যারা আসে তাদের বাবা-মা এমন যে যারা দিন আনে দিন খায়। পড়াশোনার জন্য এ পরিবারের সন্তানদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা লাগলে আমরা তা সর্বাত্মকভাবে চেষ্টা করে থাকি।

প্রসঙ্গত, ‘উন্নত রুচি সংস্কৃতির আধারে জীবন গড়ে তোলার প্রত্যয়’ নিয়ে শিশু কিশোর মেলা পাঠাগারটি কাজ করে যাচ্ছে। এ পাঠাগারে গল্পের বই পড়া, বিভিন্ন দিবস পালনের মধ্য দিয়ে মূল্যবোধ জাগ্রত করা। বড় বড় মনীষীদের জীবনী পড়া ও তাদের চরিত্র অনুসরণে কাজ করে যাচ্ছে। সাংস্কৃতিক কাজ যেমন নাটক, কবিতা আবৃত্তি চর্চাও হয় এ পাঠাগারে। সাথে থাকে নিয়মিত পাঠচক্রের ব্যবস্থা। এছাড়াও সংগঠনটি বন্যায় সহায়তাসহ সামাজিক কাজ করে।

এ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটির সাথে কাজ করছেন আহ্বায়ক হিসেবে ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী সায়েরা সরকার সুমি এবং সাঃ সম্পাদক হিসেবে মিরপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান রিয়াদ।

এছাড়াও উপদেষ্টা মন্ডলী হিসেবে রয়েছেন মর্জিনা খাতুন, স্নেহাদ্রি চক্রবর্তী রিন্টু, গোলাম রাব্বী, মুবিনা মোস্তফা (সাবেক শিক্ষক, ভিকারুন্নেসা হাই স্কুল)।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ