৮১৮ দিন পর বার্সার ওপরে রিয়াল!

প্রকাশিতঃ ১২:৪৯ অপরাহ্ণ, রবি, ১৮ আগস্ট ১৯

মাত্রই প্রথম ম্যাচ খেলা হলো। লা লিগার নতুন মৌসুমটা শুরু হলো চলতি সপ্তাহ থেকে। এই এক ম্যাচ দিয়ে পয়েন্ট টেবিল কোনোভাবেই নির্ধারণ করা যাবে না। এক ম্যাচের পয়েন্ট দিয়ে কে এগিয়ে, কে পিছিয়ে এটাও সঠিক বলা যাবে না।

তবে, শুক্রবার রাতে অ্যাটলেটিকো বিলবাওয়ের কাছে বার্সার হার এবং শনিবার রাতে সেল্টা ভিগোর মাঠে গিয়ে ৩-১ গোলে জিতের আসার মধ্যে রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড় এবং সমর্থকদের জন্য বিশাল একটি স্বস্তির ব্যাপার আছে।

কারণ, লিগের প্রথম ম্যাচ হোক, তবুও লম্বা একটি সময় পর এই প্রথম পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলোনার উপরে উঠতে পারলো রিয়াল মাদ্রিদ। সময়টা তিন বছরেরও কাছাকাছি। ৮১৮ দিন।

অর্থ্যাৎ, ৮১৮ দিন পর এই প্রথম লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে বার্সার উপরে থাকতে পারলো রিয়াল। মাদ্রিদ ভিত্তিক বিখ্যাত ক্রীড়া দৈনিক মার্কা জানিয়েছে এ তথ্য।

২০১৬-১৭ মৌসুমে লা লিগা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রিয়াল। সেবারই সর্বশেষ পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলোনার ওপর থাকতে পেরেছিল রিয়াল। এরপর পুরো দুটি মৌসুম কেটে গেছে, দিনের হিসেবে পার হয়েছে ৮১৮ দিন। লম্বা এই সময়টা পয়েন্ট টেবিলে বার্সার পেছনেই থাকতে হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদকে।

তবে এই সময়ে বেশ কয়েকবারই পয়েন্ট টেবিলে বার্সার সমান হয়েছিল রিয়ালের পয়েন্ট। কিন্তু এগিয়ে যেতে পারেনি। গত মৌসুমে তো চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার চেয়ে ১৯ পয়েন্ট কম নিয়ে লিগ শেষ করেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। দুই ক্লাবের প্রতিদ্বন্দ্বীতার ইতিহাসে বার্সার চেয়ে এত বড় গ্যাপ আর কখনো হয়নি রিয়ালের।

সেল্টা ভিগোর সঙ্গে জয়ের পর আরও একটি স্বস্তির সুবাতাস রিয়াল শিবিরে। ২০০৭-০৮ মৌসুমের পর এই প্রথম একেবারে লিগের প্রথম ম্যাচে জয় এবং বার্সার উপরে থেকে শুরু করতে পারলো রিয়াল। প্রায় এক যুগ আগে ওই মৌসুমে লা লিগা শিরোপাও জিতেছিল লজ ব্লাঙ্কোজরা।

লা লিগায় আগামী সপ্তাহে ঘরের মাঠে রিয়াল খেলবে রিয়াল ভায়াদোয়িদের বিপক্ষে। আর ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনা স্বাগত জানাবে রিয়াল বেটিসকে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ