তাহিরপুরে গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ কাজে অনিয়ম

প্রকাশিতঃ ৬:০৪ অপরাহ্ণ, সোম, ১ জুন ২০

সেলিম আহমদ, সুনামগঞ্জ : জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের আজও শেষ হয়নি গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ কাজ। চলতি অর্থবছরে গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ কর্মসূচির আওতায় তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের লামাপাড়া গ্রামের মো. ফরিদ হোসেন ও একই ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের মানিক মিয়াকে ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়। ঘর দুটির নির্মাণে সরকার নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো কাজ শেষ হয়নি।

অভিযোগ ওঠেছে ঘর নির্মাণের বরাদ্দের টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের পায়তারা করছে একটি মহল।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, ফরিদ গাজীর ঘরের ইট গাথুনির কাজ শেষ হলেও বাকী কোন কাজ ই হয়নি। এদিকে ইসলামপুর গ্রামের মানিক মিয়ার ঘরের পুরো কাজ এখনো সমাপ্ত হয়নি এবং ঘর তৈরির উপকরণে নিম্ন মানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ফরিদ হোসেন বলেন, আমার পারিবারিক সমস্যার কারণে ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। বরাদ্দের বিষয়ে তিনি বলেন এ বিষয়ে চেয়ারম্যানসাব ভালো জানেন আমি কিছু জানি না।

অপর ঘরের মালিক ইসলামপুর গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে মানিক মিয়া বলেন, আমার ঘরের কাজ প্রায় শেষ, নির্মাণ কাজে কোন অনিয়ম হয়নি।

বরাদ্দের পরিমাণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, এসব বিষয়ে চেয়ারম্যানসাব জানেন।

এ বিষয়ে বরখাস্থকৃত ইউপি চেয়ারম্যান আফতাব জানান, করোনা পরিস্থিতি ও দুর্গম এলাকায় ঘর নির্মাণের মালামাল পরিবহনের সমস্যা হওয়ায় কাজ শেষ করতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। তবে মানিক মিয়ার ঘরের ৯৫ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে ও ফরিদ হোসেনের পারিবারিক সমস্যার কারণে ঘরের পুরো কাজ শেষ করা যায়নি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ঘরের কাজ শেষ করা হবে। গৃহ নির্মাণের কোন কাজে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করা হয়নি। নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। শীঘ্রই ঘর নির্মানের কাজ শেষ হবে। কোথাও কোন অনিয়ম হয়নি।

তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্দু চৌধুরী বাবুল বলেন, গৃহহীনদের জন্য গৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় তাহিরপুর উপজেলায় ত্রিশটি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। কিছু কিছু ঘরের নির্মাণ কাজ নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ ওঠেছে এগুলো তদন্ত করে দেখা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জী বলেন, চেয়ারম্যান বরখাস্ত হওয়ার কারণে ঘরের নির্মাণ কাজ অসমাপ্ত রয়েছে। অচিরেই কাজ শেষ করা হবে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।